মানবসম্পদ উন্নয়নে জাপানের অনুদান

প্রকাশ : ০৯ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকারি কর্মকর্তাদের উচ্চশিক্ষা ও প্রশিক্ষণের জন্য আগামী তিন বছরে বাংলাদেশকে প্রায় ১১৪ কোটি টাকা অনুদান দেবে জাপান। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এই সম্পর্কে চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব কাজী শফিকুল আযম এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত মাসাতো ওয়াতানাবে।

প্রকল্পটি ২০০১ সাল থেকে চলমান এবং ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত চলবে। জাপান সরকার প্রতি বছর এ প্রকল্পে অনুদান সহায়তা দেবে এবং সে অনুযায়ী প্রতি বছর জাপান সরকারের সাঙ্গে বিনিময় নোট ও অনুদান চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়ে থাকে। প্রকল্পটির অনুকুলে ২০১৬ সাল পর্যন্ত মোট ৪ হাজার ৩৩০ মিলিয়ন জাপানি ইয়েন অনুদান সহায়তা পাওয়া গেছে। এ প্রকল্পের আওতায় বিসিএস ক্যাডার কর্মকর্তা এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তাগণকে জাপানের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ২ বছর মেয়াদী মাস্টার্স কোর্সে অধ্যয়নের জন্য বৃত্তি প্রদান করা হয়। প্রকল্পের অধীনে জাপানে অধ্যয়নের সুযোগপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণকে প্রদত্ত বৃত্তির শতভাগ অর্থ জাইকার মাধ্যমে জাপানে প্রদান করা হয়। এ পর্যন্ত ২৪০ জন কর্মকর্তা এ প্রকল্পের আওতায় জাপান হতে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেছেন। বর্তমানে ৫৪ জন কর্মকর্তা জাপানে অধ্যয়নরত আছেন এবং ৩০ জন কর্মকর্তা সর্বশেষ ব্যাচে জাপানের অধ্যয়নের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন।

অনুষ্ঠানে কাজী শফিকুল আযম বলেন, গত জুন মাসে ৩৮তম ওডিএ ঋণ প্যাকেজ বিষয়ে জাপানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এখন ৩৯তম প্যাকেজের প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে নতুন ঋণ প্যাকেজে আরো মেগা প্রকল্পের ঋণ নেওয়া এবং অর্থ ছাড় কীভাবে বাড়ানো যায় সে বিষয়ে উদ্যোগ নেওয়া।

"