ব্যাংকিং খাতে লাগামহীন খেলাপি ঋণ

প্রকাশ : ১৮ মে ২০১৭, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

লাগামহীনভাবে বাড়ছে খেলাপি ঋণ। এ বিষয়ে সতর্ক ও সচেতন না হলে আগামীতে অনেক ব্যাংক তাদের অস্তিত্ব হারাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। ঋণ বিতরণে অদক্ষতা, অব্যবস্থাপনা, অনিয়ম-দুর্নীতিসহ যাচাই-বাছাই না করেই ঋণ দেওয়া বন্ধ করার জন্য কঠোর হওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন তারা।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী জানা গেছে, চলতি বছরের মার্চ শেষে ব্যাংকিং খাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৭৩ হাজার ৪০৯ কোটি টাকা। যা মোট বিতরণ করা ঋণের ১০ দশমিক ৫৩ শতাংশ। খেলাপি ঋণের ওপর কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তৈরি করা মার্চ’১৭ প্রান্তিকের সর্বশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। আরো জানা গেছে, ২০১৭ সালের মার্চ শেষে ব্যাংক খাতে বিতরণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৯৭ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৭৩ হাজার ৪০৯ কোটি টাকা, যা ডিসেম্বর ২০১৬ শেষে ছিল ৬২ হাজার ১৭২ কোটি টাকা। অর্থাৎ তিন মাসে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ১১ হাজার ২৩৭ কোটি টাকা। আর এক বছরের ব্যবধানে খেলাপি ঋণ বেড়েছে প্রায় ১৪ হাজার কোটি টাকা। ২০১৬ সালের মার্চ প্রান্তিক শেষে ব্যাংকিং খাতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল ৫৯ হাজার ৪০০ কোটি টাকা।

তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, চলতি বছরের মার্চ শেষে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী, অগ্রণী, জনতা, রূপালী, বেসিক ও বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৫ হাজার ৭১৬ কোটি টাকা, যা আগের ডিসেম্বর ’১৬ প্রান্তিকের চেয়ে ৪ হাজার ৬৯১ কোটি টাকা বেশি। প্রতিবেদনে আরও দেখা যায়, মার্চ’১৭ শেষে বেসরকারি খাতের ব্যাংকগুলোতে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৯ হাজার ৭২৭ কোটি টাকা, যা তিন মাসের ব্যবধানে ৬ হাজার ৬৭০ কোটি টাকা বেশি। আর বিদেশি খাতের ব্যাংকগুলোতে মার্চ’১৭ প্রান্তিকে ১২৩ কোটি টাকা কমায় খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ২৮২ কোটি টাকা।

"