বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে মুদ্রণ প্রযুক্তি প্রদর্শনী প্রিন্টেক বাংলাদেশ-২০১৯

প্রকাশ : ০৮ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

মুদ্রণশিল্পের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি, মেশিনারিজ, কাগজ, কালি, স্পেয়ার্স ও নানাবিধ যন্ত্রপাতি নিয়ে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক প্রদর্শনী প্রিন্টেক বাংলাদেশ-২০১৯ শুরু হচ্ছে।

রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেশন সিটি বসুন্ধরায় আস্ক ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন্স প্রাইভেট লিমিটেড এবং বাংলাদেশ মুদ্রণশিল্প সমিতির (পিআইএবি) যৌথ উদ্যোগে প্রথমবারের মতো আয়োজিত এ প্রদর্শনীতে সব ধরনের প্রিন্টিং ও প্যাকেজিং শিল্পসংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক পণ্য ও প্রযুক্তি তুলে ধরা হবে।

গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আয়োজক সংস্থা আস্ক ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন্স প্রাইভেট লিমিটেড এবং পিআইএবি এসব তথ্য জানায়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ মুদ্রণশিল্প সমিতির চেয়ারম্যান শহীদ সেরনিয়াবাত ও আস্ক ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন্স প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিপু সুলতান ভূঁইয়া

তারা জানান, ‘স্ক্রিনটেক্স বাংলাদেশ ২০১৯’-এ স্ক্রিন, ডিজিটাল, সাব্লিমেশন ও টেক্সটাইল প্রিন্টিংয়ের ওপর প্রি-প্রেস, ইন-প্রেস, পোস্ট প্রেস, ফিনিশিং, কনভার্টিং, সাইনেজ, স্ক্রিন, করুগেশন, কাগজ, প্যাকেজিং, সফটওয়্যার, কালি, মেশিন স্পেয়ার্স, কেমিক্যাল ও প্রভৃতি সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তি প্রদর্শন করা হবে। ইন্ডিয়ান প্রিন্টিং প্যাকেজিং অ্যান্ড অ্যালায়েড মেশিনারি মেনুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন (আইপিএএমএ) এবং স্ক্রিন প্রিন্টারর্স অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়া (এসপিআইএ) থেকে প্রায় ৬০টি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করছে এ প্রদর্শনীতে। এ ছাড়া চীন এবং বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানও অংশগ্রহণ করছে।

স্থানীয় শিল্পের দোরগোড়ায় আন্তর্জাতিক অভিনব ও সর্বাধুনিক প্রযুক্তি তুলে ধরতে এবং বাংলাদেশের এ শিল্পের সঙ্গে অন্যান্য দেশের মধ্যে সেতুবন্ধ তৈরি করতেই মূলত এই প্রচেষ্টা বলে জানান আয়োজকরা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বর্তমানে মুদ্রণশিল্প বাংলাদেশের জাতীয় অর্থনীতিতে একটি গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামক। এ শিল্পের অবকাঠামোগত উন্নয়ন, আধুনিক প্রযুক্তি এবং কারিগরি শিক্ষা প্রসারে এ ধরনের প্রদর্শনী এখন সময়ের দাবি। বর্তমানে দেশে প্রায় ৭ হাজার মুদ্রণ প্রতিষ্ঠান কার্যক্রম পরিচালনা করছে। যার মধ্যে প্রায় দুই হাজার প্রতিষ্ঠান প্রযুক্তির ব্যবহারে আধুনিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিবেচ্য। প্রিন্টেক বাংলাদেশের উদ্দেশ্যই এ শিল্পসংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠানকে আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে উন্নীত করা। প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত বিনামূল্যে সবার জন্য প্রদর্শনীটি ১২ অক্টোবর ২০১৯ পর্যন্ত উন্মুক্ত থাকবে।

 

 

"