বিল্ড বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো ১৭ অক্টোবর

প্রকাশ : ০৭ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক মানের ছয়টি প্রদর্শনী। ‘২৬তম বিল্ড বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো’ নামের তিন দিনব্যাপী এই প্রদর্শনী শুরু হবে আগামী ১৭ অক্টোবর। রাজধানীর কুড়িল বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে আন্তর্জাতিক মানের এ প্রদর্শনীর আয়োজন করছে সেমস গ্লোবাল নামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।

গতকাল রোববার রাজধানীর পল্টনে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের (ইআরএফ) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সেমস গ্লোবালের পক্ষ থেকে এসব তথ্য জানানো হয়। কনস্ট্রাকশন, বিদ্যুৎ, সৌরশক্তি, পানি, সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি, লাইটিং এবং রিয়েল এস্টেট শিল্পের সঙ্গে নেটওয়ার্ক গড়তে ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপারদের জন্য একটা অনন্য প্রদর্শনী রাখা হবে এবারের আয়োজনে। যেখানে বাংলাদেশ ছাড়াও ১৪টির দেশের কোম্পানি ও ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করবে। ডেভেলপাররা অবকাঠামো উন্নয়ন সংশ্লিষ্টসহ গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জামাদি এবং পরিষেবাগুলো সম্পর্কে জানার সুযোগ পাবেন।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানান হয়, আন্তর্জাতিক এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। ১৯ অক্টোবর প্রদর্শনী শেষ হবে। প্রদর্শনীর পাশাপাশি দুটি সেমিনার হবে। এর মধ্যে ১৭ অক্টোবর বিকাল ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ‘ইন্ডাস্ট্রিয়াল রুফটপ সোলার-কেপেক্স, ওপেক্স মডেল’ শীর্ষক একটি সেমিনার হবে। ১৯ অক্টোবর সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ‘সাসটেইনেবল ম্যানেজমেন্ট অব ইন্ডাস্ট্রিয়াল ওয়াটার অ্যান্ড ওয়াটার ওয়েস্ট : ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড অপারেশনস’ শীর্ষক আরেকটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। প্রদর্শনীটির পৃষ্ঠপোষকতা করছে ‘২২তম পাওয়ার বাংলাদেশ এক্সপো ২০১৯, ‘১৭তম সোলার বাংলাদেশ এক্সপো ২০১৯, ‘দ্বিতীয় ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল লাইটিং এক্সপো ২০১৯, ‘তৃতীয় ওয়াটার বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো ২০১৯, ‘২০তম রিয়েল এস্টেট এক্সপো-বাংলাদেশ ২০১৯’, এবং ‘চতুর্থ ইন্টারন্যাশনাল সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি এক্সপো বাংলাদেশ ২০১৯’।

১৯৯২ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে সেমস গ্লোবাল ২৭ বছরের বেশি সময় ধরে দক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, উত্তর আমেরিকায় বহুজাতিক প্রদর্শনীর আয়োজক প্রতিষ্ঠান হিসেবে সুনাম কুড়িয়েছে। সেমস গ্লোবাল বিশ্বের সাতটি দেশ থেকে তার কার্যক্রম পরিচালনা করছে এবং বাণিজ্য ও অর্থনীতির সব গুরুত্বপূর্ণ খাতে প্রতি বছর ৪০টিরও বেশি প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে। নিউইয়র্কে অবস্থিত সদর দফতর থেকে গ্রুপের কার্যক্রম পরিচালিত হয়। ভারত, চীন, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা এবং ব্রাজিলে সেমস গ্লোবালের শাখা অফিসগুলো থেকে কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

 

"