২৫ হাজার টাকায় ৪৮ মেগাপিক্সেলের স্মার্টফোন আনল অপো

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

দুটি নতুন মডেলের স্মার্টফোন বাজারে নিয়ে এসেছে অপো। এর একটির দাম ২৫ হাজার, আর আরেকটির ২০ হাজার টাকা। গতকাল বুধবার রাজধানীর লেকশোর হোটেলে ‘অপো এ৯ ২০২০’ এবং ‘এ৫ ২০২০’ নামের এই ফোন উন্মোচন করা হয়। ৪৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরাসমৃদ্ধ কোয়াড ক্যামেরাযুক্ত অপো এ৯ ২০২০-তে থাকছে ৮ গিগাবাইট র‌্যাম এবং ৫ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। এর দাম ২৪ হাজার ৯৯০ টাকা। অপো এ৫ ২০২০-এ থাকছে ১২ মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা, ৪ গিগাবাইট র‌্যাম এবং ১২৮ গিগাবাইট মেমোরি। ফোনটি পাওয়া যাবে ১৯ হাজার ৯৯০ টাকায়। ‘অপো এ৯ ২০২০’ পাওয়া যাচ্ছে ‘মিরর ব্ল্যাক’ এবং ‘ড্যাজলিং হোয়াইট’ রঙ এ আর ‘অপো এ৫ ২০২০’ পাওয়া যাবে ‘স্পেস পার্পল’ এবং ‘মেরিন গ্রিন’ এ দুটি রঙ এ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অপো বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডেমন ইয়াং, ক্রিকেটার তাসকিন আহমেদ, অপো বাংলাদেশের পাবলিক রিলেশনস ম্যানেজার ইফতেখার সানি এবং মিডিয়া ম্যানেজার তেহসিন মুসাভি।

বাংলাদেশের বাজারে নতুন দুটি স্মার্টফোন উন্মোচন করা প্রসঙ্গে ডেমন ইয়াং বলেন, বর্তমান সময়ে স্মার্টফোন এমন একটি ডিভাইসে পরিণত হয়েছে যেটিকে একাধারে যোগাযোগ সেবা থেকে শুরু করে ছবি তোলা কিংবা বিনোদনের ক্ষেত্রে সব চাহিদা পূরণের উপযোগী হতে হয়। সাশ্রয়ী দামে যুগান্তকারী সব উদ্ভাবন সমৃদ্ধ স্মার্টফোন ক্রেতাদের হাতে তুলে দেওয়ার প্রয়াসে অপো নিয়ে এলো স্মার্টফোন দুটি।

অপো এ৯ ২০২০

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, হার্ডকোর গেমার এবং ভ্রমণকারীদের জন্যে বিশেষভাবে নির্মিত অপো এ৯ ২০২০ স্মার্টফোন।

হাই-ইন্টেন্সিভ গেমিংয়ের জন্যে বিশেষভাবে নির্মিত এই স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৮ গিগাবাইট র‌্যাম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ প্রসেসর ও ১২৮ গিগাবাইট ইন্টারনাল মেমোরি।

১১ ন্যানোমিটারের এই প্রসেসরটির বিশেষভাবে নির্মাণ করা হয়েছে ভারি গেমসগুলোর চলবার উপযোগী করেই। তাছাড়া ৮ গিগাবাইট র‌্যাম স্থাপন করায় মাল্টিটাস্কিংয়ের ক্ষেত্রেও অনবদ্য পারফরম্যান্স দিতে সক্ষম এই স্মার্টফোনটি।

অপো এ৯ ২০২০ তে থাকা গেমবুস্ট ২ দশমিক শূন্য থাকায় তা প্রসেসিং সক্ষমতার অপটিমাইজড ব্যবহার নিশ্চিত করে। ফলে ল্যাগমুক্ত গেমিং অভিজ্ঞতা দেবে এই ফোনটি। যেকোনো বিনোদনের ক্ষেত্রে শব্দ অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান।

এ দিকটি বিবেচনা করে ফোনটিতে যুক্ত করা হয়েছে ‘ডলবি এটমস সাউন্ড ইফেক্ট’ যা ঘরের কোণে কোণে শব্দ ছড়িয়ে দিয়ে দুর্দান্ত এক অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে গেমিং কিংবা ভিডিও দেখার সময়।

ভ্রমণকারীদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে ফোনটিতে স্থাপন করা হয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেল কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা। কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে থাকছে ৪৮ মেগাপিক্সেল সেন্সর সমৃদ্ধ মূল ক্যামেরা সেন্সর, এছাড়াও স্বল্প দূরত্বে চওড়া পটভূমির ছবি তোলার জন্যে রয়েছে ১১৯ ডিগ্রি বাঁকানো লেন্সের ৮ মেগাপিক্সেল ‘আলট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল’ লেন্স।

এছাড়াও থাকছে ২ মেগাপিএক্সেল পোর্ট্রেইট লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল মনোলেন্স। বিশেষ করে রাতে ছবি তোলার জন্যে ফোনটিতে থাকা ৪৮ মেগাপিক্সেল সেন্সরে রয়েছে চারটি ফটোসেনসিটিভ পিক্সেলকে একটি সেন্সরে পরিণত করার প্রযুক্তি, ফলে আকারে বড় এই ফটোসেনসিটিভ এরিয়া ছবি ধারণের সময় অধিক মাত্রায় আলো ধারণে সক্ষম হয় বলে রাতের আলোতেও বেশ ঝকঝকে ছবি তুলতে সক্ষম ‘অপো এ৯ ২০২০’।

এছাড়াও এই ফোনে থাকছে ‘আলট্রা-নাইট মোড’ যা একের অধিক ছবি ধারণ করে তা সমন্বয়ের মাধ্যমে এবং ‘এইচডিআর’ প্রযুক্তির সহায়তায় দারুণ ছবি তুলতে সক্ষম। এমনকি রাতে খোলা চোখে যতটুকু আমরা দেখতে পাই, তার থেকেও নিখুঁত ছবি ধারণে সক্ষম অপো এ৯ ২০২০ এর কোয়াড ক্যামেরা সিস্টেম।

গেমার আর ভ্রমণকারীদের আনন্দমুখর মুহূর্তগুলো ধারণে সক্ষম ক্যামেরা স্থাপনের পাশাপাশি দিনভর ছবি ধারণ করা কিংবা দীর্ঘসময় গেমস খেলার উপযোগী করতে ফোনটিতে স্থাপন করা হয়েছে ৫ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। একবার চার্জে ১৩ ঘণ্টার অধিক সময় একটানা ব্যবহারের উপযোগী এই স্মার্টফোনটি।

অপো এ৫ ২০২০ স্মার্টফোনটিতেও স্থাপন করা হয়েছে ৫ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। এতেও থাকছে ১২ মেগাপিক্সেল কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ এবং স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ প্রসেসর। থাকছে ৪ গিগাবাইট র‌্যাম এবং ১২৮ গিগাবাইট ইন্টারনাল মেমোরি।

 

"