ডিএসইর লেনদেন বাড়লেও কমেছে সিএসইর

প্রকাশ : ২২ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবস গতকাল বুধবার পুঁজিবাজারে সূচকের মিশ্র প্রবণতার মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন বাড়লেও কমেছে অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই)। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ২২৩ পয়েন্টে। ডিএসইতে অপর দুই সূচকের মধ্যে শরিয়াহ সূচক ০.২৬ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২০৪ ও ১৮৪১ পয়েন্টে। এদিন ডিএসইতে ৫৪২ কোটি ৫৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিন থেকে ৬৯ কোটি টাকা বেশি। আগের দিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৪৭২ কোটি টাকার। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৫৪টি কোম্পানির মধ্যে ১২৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে, কমেছে ১৯৪টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টি কোম্পানির শেয়ারদর। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হওয়া শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠান হলোÑ ইউনাইটেড পাওয়ার, ওরিয়ন ইনফিউশন, ফরচুন সুজ, জেএমআই সিরিঞ্জ, বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন, মুন্নু সিরামিক, বিকন ফার্মা, খুলনা পাওয়ার, সিলকো ফার্মা এবং আলহাজ টেক্সটাইল।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৯৮১ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাতবদল হওয়া ২৫৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ারদর বেড়েছে ১০৮টির, কমেছে ১২০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির দর।

সিএসইতে ২১ কোটি ২১ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে ২৩ কোটি টাকা কম। আগের দিন সিএসইতে ৪৪ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছিল।

 

 

"