ডিএসইতে টার্নওভার বেড়েছে ৪৭ দশমিক ৫৬ শতাংশ

প্রকাশ : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

বাণিজ্য ডেস্ক

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সপ্তাহের ব্যবধানে টার্নওভার বেড়েছে ৪৭ দশমিক ৫৬ শতাংশ। আলোচ্য সময়ে সবচেয়ে বেশি বেড়েছে ‘এ’ ক্যাটাগরি কোম্পানির শেয়ারের টার্নওভার। পাশাপাশি অন্যান্য ক্যাটাগরির শেয়ারের টার্নওভারও সামান্য বেড়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, গেলো সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৪ হাজার ৫০৬ কোটি ৩১ লাখ ৪৪ হাজার টাকা টার্নওভার হয়েছে। আগের সপ্তাহে যার পরিমাণ ছিল ৩ হাজার ৫৩ কোটি ৮৭ লাখ ৬৯ হাজার টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে টার্নওভার বেড়েছে ১ হাজার ৪৫২ কোটি ৪৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা।

এদিকে, মোট টার্নওভারের মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরি কোম্পানির হয়েছে ৯৩ দশমিক ১৩ শতাংশ। গেলো সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির ৪ হাজার ১৯৬ কোটি ৫২ লাখ ২৬ হাজার টাকার শেয়ার টার্নওভার হয়েছে, আগে সপ্তাহের যার পরিমাণ ছিল ২ হাজার ৮২৭ কোটি ৫৪ লাখ ১৫ হাজার টাকা।এক সপ্তাহে আলোচ্য ক্যাটাগরির টার্নওভার বেড়েছে ১ হাজার ৩৬৮ কোটি ৯৮ লাখ ১১ হাজার টাকা। গেলো সপ্তাহে মোট টার্নওভারে ‘বি’ ক্যাটাগরির অংশগ্রহন ছিল ২ দশমিক ৭৩ শতাংশ, ‘এন’ ২ দশমিক ৮১ শতাংশ, ‘জেড’ ক্যাটাগরির ১ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

প্রসঙ্গত, বাজারে তালিকাভুক্ত যেসব কোম্পানি নিয়মিত বার্ষিক সাধারন সভা (এজিএম) করে এবং শেয়ার হোল্ডারদের জন্য নূন্যতম ১০ শতাংশ বা তার চেয়ে অধিক লভ্যাংশ দেয় সেসব প্রতিষ্ঠান ‘এ’ ক্যাটাগরির অন্তর্ভূক্ত। তাছাড়া যেসব কোম্পানি নিয়মিত এজিএম করে কিন্তু ১০ শতাংশের কম লভ্যাংশ দেয় সেগুলো ‘বি’ ক্যাটাগরিতে অন্তর্ভূক্ত। অপরদিকে যেসব ক্মোপানি নিয়মিত এজিএম করে না, লভ্যাংশ দিতে ব্যর্থ, লোকসানে পড়েছে, উৎপাদন বন্ধ সেব প্রতিষ্ঠান ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে এবং নতুন তালিকাভুক্ত কোম্পানি ‘এন’ ক্যাটাগরির অন্তর্ভূক্ত।

"