মাইডাসের ৩৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী

উন্নত বিশে^র সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে বাণিজ্য করতে সক্ষম বাংলাদেশ

প্রকাশ : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, উন্নত বিশে^র সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে বাণিজ্য করতে বাংলাদেশ সক্ষমতা অর্জন করেছে। তিনটি শর্ত পূরণ করে বাংলাদেশ এরই মধ্যে এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে প্রবেশের প্রথম ধাপ সফলভাবে অতিক্রম করেছে। ২০২৪ সালে বাংলাদেশ পরিপূর্ণ ভাবে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে বলে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

বাণিজ্যমন্ত্রী গতকাল ঢাকায় মাইডাস সেন্টারে মাইক্রো ইন্ডাস্ট্রিজ ডেভেলপমেন্ট অ্যাসিস্টেন্স অ্যান্ড সার্ভিসের (মাইডাস) ৩৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ২০২৭ সালের পর বাংলাদেশ আর এলডিসিভুক্ত দেশের বাণিজ্য সুবিধা পাবে না। বিশ^ বাণিজ্যে প্রতিযোগিতা করে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ। এজন্য বাংলাদেশ প্রস্তুতি শুরু করেছে, নির্ধারিত সময়ের আগেই বাংলাদেশ এ জন্য প্রয়োজনীয় সক্ষমতা অর্জন করবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ বিশে^ উন্নয়নের রোল মডেল। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শূন্য হাতে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ পরিচালনার দায়িত্বভার গ্রহণ করেছিলেন। সোনার বাংলা গড়ার কাজ শুরু করলেও তা তিনি শেষ করতে পারেননি। আজ তারই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ করছেন। বাংলাদেশ আজ অর্থনৈতিক, সামাজিকসহ সব ক্ষেত্রে সফলভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। যারা একসময় বলত, বাংলাদেশ তলাবিহনী ঝুড়ি এবং বিশে^র মধ্যে দরিদ্র দেশের রোল মডেল, আজ তারাই বলছে বাংলাদেশ বিশে^র মধ্যে উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশ আজ পাকিস্তান থেকে সব ক্ষেত্রে এগিয়ে গেছে। পাকিস্তানের মানুষ নতুন প্রধানমন্ত্রীর কাছে বাংলাদেশের মতো উন্নয়ন দাবি করেছে। বাংলাদেশকে পাকিস্তানের মানুষ উন্নয়নের মডেল হিসেবে বেচে নিয়েছে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন এখন দৃশ্যমান। বাংলাদেশের রফতানি ৩৪৮ মিলিয়ন ডলার থেকে গত বছর মোট রফতানি দাঁড়িয়েছে ৪১.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে। রফতানি দিন দিন বাড়ছে। পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, কর্ণফুলী টানেল, মাতারবাড়ি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মতো বৃহৎ প্রকল্পগুলো বাংলাদেশ বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ভীষণ ২০২১ অর্জিত হয়েছে। বাংলাদেশ এখন ডিজিটাল মধ্য আয়ের দেশ। ২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে উন্নত দেশ।

অনুষ্ঠানে মাইডাসের সহযোগিতায় ব্যবসায় বিভিন্ন ক্ষেত্রে অসামান্য কৃতিত্ব অর্জনের জন্য আটজন বিশিষ্ট উদ্যোক্তাকে মাইডাসের পরিচালনা পরিষদ ‘মাইডাস উদ্যোক্তা পুরস্কার-২০১৮’ প্রদান করে। বাণিজ্যমন্ত্রী তাদের হাতে ক্রেস্ট এবং সার্টিফিকেট তুলে দেন।

মাইডাস পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি পারভীন মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত এইচ হেরি ভারউইজি, ইউএসএইডের বাংলাদেশ মিশন পরিচালক ডেরিক এস ব্রাউন, পাম নেদারল্যান্ডসের সিনিয়র বিশেষজ্ঞ আকি ওকমা, মাইডাস পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক রোকেয়া এ রহমান এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এ এস এম মশিউর রহমান।

 

"