গাজীপুরের নতুন মেয়র পাচ্ছেন ৬৬০ কোটি টাকার প্রকল্প

যানজট ও জলাবদ্ধতা নিরসনে এ প্রকল্পটি হাতে নিচ্ছে জিসিসি

প্রকাশ : ১০ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

নবনির্বাচিত গাজীপুরের মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম পাচ্ছেন ৬৬০ কোটি ৮২ লাখ টাকার প্রকল্প। যানজট ও জলাবদ্ধতা নিরসনে এ প্রকল্পটি হাতে নিচ্ছে গাজীপুর সিটি করপোরেশন (জিসিসি)। তবে প্রকল্পটি হাতে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে অনেক আগেই। ‘গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন (রাস্তা ও ড্রেন)’ নামে প্রকল্পটির প্রস্তাব করা হয়েছে পরিকল্পনা কমিশনে। আজ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে এটি উপস্থাপনের কথা রয়েছে। অনুমোদন পেলে চলতি বছর থেকে ২০২০ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

জানা যায়, প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রমগুলো হচ্ছে, ১৮ দশমিক ৮ কিলোমিটার আরসিসি সড়ক নির্মাণ, ১২২ দশমিক ৫৪ কিলোমিটার আরসিসি ড্রেন নির্মাণ এবং ২২৪ দশমিক ৩৪ কিলোমিটার বিটুমিনাস কার্পেটিং সড়ক নির্মাণ করা হবে। সূত্র জানায়, গাজীপুর বাংলাদেশের প্রাচীনতম ঐতিহাসিক শহরগুলোর মধ্যে অন্যতম। ভাওয়াল জমিদার ১৭ শতকের প্রথম দিকে এ শহরের গোড়াপত্তন করেন। ২০১৩ সালে গাজীপুর ও টঙ্গী পৌরসভা এবং ছয়টি ইউনিয়ন (কাশিমপুর, কোনাবাড়ী, বাশন, কাউলতিয়া, গাছা ও পুবাইল) নিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশন গঠিত হয়। এ সিটি করপোরেশনের ওয়ার্ড সংখ্যা ৫৭টি যা পাঁচটি জোনে বিভক্ত। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মোট আয়তন ৩২৯ দশমিক ৫৩ বর্গকিলোমিটার। এর মধ্যে আগের গাজীপুর ও টঙ্গী পৌরসভা এলাকা ২৪৪ দশমিক ৭১ বর্গকিলোমিটার এবং বাকি নতুন ছয়টি ইউনিয়নের আয়তন ৮৪ দশমিক ৮২ বর্গকিলোমিটার। এ সিটি করপোরেশনের নব সংযুক্ত এলাকা অনুন্নত। নতুনভাবে সংযুক্ত এলাকার বেশিরভাগ রাস্তাই কাঁচা। তাছাড়া গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বিদ্যমান সড়কগুলোর কম প্রশস্ত হওয়ায় যানজট লেগেই থাকে। বর্ষাকালে এ সময় রাস্তা কর্দমাক্ত হয়ে পড়ায় যান চলাচল বাধাগ্রস্ত হয়। এছাড়া সিটি করপোরেশনের ড্রেনেজ ব্যবস্থা অত্যন্ত খারাপ হওয়ায় জলাবদ্ধতা তৈরি হয়।

"