চীনা কনসোর্টিয়াম পুঁজিবাজারের জন্য ইতিবাচক হবে : অর্থমন্ত্রী

চীনা কনসোর্টিয়ামের সঙ্গে ডিএসইর চুক্তি সম্পন্ন

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসেবে চীনের দুই পুঁজিবাজার শেনজেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কনসোর্টিয়ামের সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে এই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, চীনা কনসোর্টিয়ামের সঙ্গে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের চুক্তি দেশের পুঁজিবাজারের জন্য ইতিবাচক হবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ডিএসইর পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এ এম মাজেদুর রহমান, শেনজেন স্টক এক্সচেঞ্জের প্রেসিডেন্ট ও সিইও ওয়াং জেনজুন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের সুপারভাইজারি বোর্ডের চেয়ারম্যান পেন শুয়েশিয়ান স্বাক্ষর করেন। চুক্তি সাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদসহ শেয়ারহোল্ডাররা, শেনজেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কনসোর্টিয়ামের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। অনূষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী বলেন, চীনা কনসোর্টিয়ামের সঙ্গে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের চুক্তি দেশের পুঁজিবাজারের জন্য ইতিবাচক হবে।

অনুষ্ঠানে ডিএসইর চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল হাশেম বলেন, ২০১৫ সাল থেকেই কৌশলগত বিনিয়োগকারী খোঁজা শুরু করা হয়। কৌশলগত বিনিয়োগকারীর সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্কের মাধ্যমে পুঁজিবাজারের টেকসই উন্নয়নকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সবকিছু যাছাই-বাছাই করে শেনজেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কনসোর্টিয়ামকে নির্বাচন করা হয়েছে। কেননা এরা কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসাবে ডিএসইর প্রযুক্তিগত উন্নয়ন করবে। এছাড়া নতুন পণ্যের আনয়ন ও শেয়ারবাজারের টেকসই উন্নয়নে সহযোগিতা করবে।

এর আগে কৌশলগত বিনিয়োগকারী হিসাবে চীনের দুই পুঁজিবাজার শেনজেন ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জের কনসোর্টিয়ামের প্রস্তাবকে অনুমোদন দিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) শেয়ারহোল্ডাররা। একইদিন বিকালে অনুমোদনের জন্য বিএসইসিতে প্রস্তাব জমা দেয় ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ। এরপরে গত ৩ মে বৃহস্পতিবার বিএসইসির ৬৪৩তম কমিশন সভায় এ চীনা কনসোর্টিয়ামকে কৌশলগত বিনিয়োগকারী বা স্ট্যাটেজিক পার্টনার করতে ডিএসইকে অনুমোদন দেওয়া হয়।

"