ইন্টারনেটের ওপর থেকে ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি অ্যামটবের

মোবাইল শিল্প বিকাশে ১০ দাবি

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর আরোপিত ভ্যাট ও অন্যান্য কর প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে মোবাইল ফোন অপারেটরদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশ (অ্যামটব)। অ্যামটব নেতারা বলেন, ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর থেকে ভ্যাট তুলে নেওয়া হলে তা দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এ ছাড়াও মোবাইল শিল্প বিকাশে মোট ১০টি দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। গতকাল জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সম্মেলন কক্ষে প্রাক-বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে আগামী বাজেটে অন্তর্ভুক্ত করতে একগুচ্ছ প্রস্তাবনা দিয়েছে অ্যামটব। এনবিআরের চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এতে সভাপতিত্ব করেন। প্রাক-বাজটে আলোচনায় অংশ নিয়ে অ্যামটব মহাসচিব টিআইএম নুরুল কবির বলেন, বর্তমানে ইন্টারনেটের ওপর ২১ দশমিক ৭৫ শতাংশ ভ্যাট, এসডি ও সারচার্জ প্রযোজ্য রয়েছে। আগামী বাজেটে এ কর অব্যাহতির প্রস্তাব করছি। তিনি বলেন, ইন্টারনেট মোডেমের ওপর আমদানি পর্যায়ে ৪ শতাংশ ও ক্রেতার কাছে ৪ শতাংশ হারে ভ্যাট আদায় করা হয়। যা সম্পূর্ণরূপে মওকুফের আবেদন করছি। বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর ‘রবি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ইন্টারনেট ব্যবহার থেকে ভ্যাট তুলে নিলে খরচ কমবে এবং ইন্টারনেট ডেটার ব্যবহার বাড়বে। তাতে সরকারের সামগ্রিক আয় বৃদ্ধি পাবে। অ্যামটবের পক্ষ থেকে করপোরেট করহার হ্রাস এবং দ্বৈত কর প্রত্যাহারের প্রস্তাবনা তুলে ধরা হয়। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সব পর্যায়ে ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর ভ্যাট ও অন্যান্য কর মওকুফের প্রয়োজন। ইন্টারনেট ব্যবহারের ওপর ভ্যাট তুলে দিলে সাধারণ মানুষের কাছে সহজলভ্য হবে। এতে অপারেটরদের আয় বৃদ্ধি এবং তথ্য প্রযুক্তির প্রসার ঘটবে। বিটিআরসির তথ্য মতে, দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের ৯৫ শতাংশ এ সেবা নিচ্ছেন মোবাইল ফোন নেটওয়ার্কের মাধ্যমে।

 

"