রাশি চক্র

কেমন যাবে ২০১৮

প্রকাশ | ০১ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০

জ্যোতিষ জ্ঞানী ড. মাখন কৃষ্ণ দাস

প্রত্যেক বছরই সঙ্গে নিয়ে আসে ভালো-মন্দ সময়। সংখ্যাতত্ত্বের বিচারে প্রত্যেকটি বছরের একটি নির্দিষ্ট সংখ্যা থাকে। যেমনÑ২০১৭ সালের সংখ্যা হলো ১ (২০১৭=২+০+১+৭=১০=১)। তেমনিভাবে ২০১৮ সালের সংখ্যা হবে ২ (২+০+১+৮=১১=১+১=২)। নতুন বছরে নতুন উদ্যমে শুরু করুন সব কিছু। প্রথম দিকে নিজের ওপর চাপ মনে হলেও, শ্রমই পথ দেখাবে আপনার লক্ষ্যে। তুলা রাশিতে মঙ্গল ও বৃহস্পতি, বৃশ্চিকে বুধ, ধনুতে রবি, শনি, শুক্র ও প্লুটো, মকরে কেতু, কুম্ভতে নেপচুন, মেষ রাশিতে ইউরেনাস, মিথুনে চন্দ্র ও কর্কট রাশিতে রাহু অবস্থান করছে।

পাশ্চাত্য জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, রবির অবস্থান সাপেক্ষে বাংলাদেশের রাশি ধনু। যেহেতু বছরের শুরুতে ধনুতে শনি, শুক্র ও প্লুটো অবস্থান করছে, কাজেই ২০১৮ সাল বাংলাদেশের জন্য ঘটনার বৈচিত্র্যে ভরপুর। সরকার ও সরকারপ্রধানের জন্য বছরটি চ্যালেঞ্জ হবে। নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপিসহ ২০ দলীয় জোট ও প্রধান রাজনৈতিক দলগুলো থাকবে সরগম, দেশ থাকবে উত্তাল, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন বিএনপিসহ ২০ দলীয় জোট প্রচন্ড চাপ প্রয়োগ করলেও যথাসময়ে জাতীয় সংসদ নিবার্চন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে সকল দল অংশগ্রহণ করবে।

আয়, অর্থ, আইন, আদালত বিষয়ে ভালো হবে, প্রকাশনা, শিপিং ব্যবসা ইত্যাদি উন্নয়ন ঘটবে। প্রাপ্তির বিষয় সুফল এবং আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের যথেষ্ট নতুন ধরনের চুক্তি সম্পাদিত হবে এ বছর। বর্ষ প্রবেশকালে বৃহস্পতি ও মঙ্গল সুন্দরভাবে এই ক্ষেত্রটিকে ট্রাইন করে আছে। তবে সাম্যবাদী সুশীল সমাজের বিরাট একটি অংশ সরকারের শুভ প্রচেষ্টাগুলোকে সমর্থন দেবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গ্রহ অবস্থান বিচার করে দেখা যায়, ২০১৮ সালে রাজনৈতিকভাবে তিনি চাপের মুখে থাকবেন। তিনি আধ্যাত্মিকতা, বুদ্ধিমতী, কূটনীতিক ও আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের অধিকারী হওয়ায় ঠান্ডা মাথায় সব সংকট মোকাবিলা করে আন্তর্জাতিকভাবে দেশ-বিদেশে যথেষ্ট সুনাম অর্জন করবেন।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপিকে আরো গঠনমূলক জনগণমুখী করে তুলবে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নেতৃত্ব। ২০১৮ সালে তার জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি অত্যন্ত আবেগপ্রবণ, উচ্চাভিলাষী ও সফল। ২০১৮ সালে শনি ও রাহুর প্রভাব থাকায় তার দলের নিজেদের ভেতরে মতবিরোধ সৃষ্টি হতে পারে। সব দিক থেকে আরো কৌশলী হতে হবে তাকে।

এ বছর শ্রমিক অসন্তোষ কমে আসবে। গার্মেন্টশিল্পে ক্ষতি কাটিয়ে অগ্রগতির দিকে যাত্রা সূচিত হবে। বেকারদের জন্য নতুন নতুন কর্মক্ষেত্র তৈরি হবে। বিদেশের সহযোগিতা আসবে এ বছর অনেক বেশি। ধর্ম ও শিক্ষা ক্ষেত্রে সংস্কার ও উন্নয়ন সাধন হবে। সরকারের প্রচেষ্টায় ব্যাংকঋণসহ বিভিন্ন সুবিধা পাবে যুব সমাজ। জননিরাপত্তা অনেক ক্ষেত্রে বৃদ্ধি পাবে, ঝড় জলোচ্ছ্বাস, বন্যা, খরা ও অগ্নিকান্ড প্রভৃতি দেখা দিতে পারে। নদ-নদীর পানি বৃদ্ধির সম্ভাবনা আছে।

এই নিয়ে নদী তীরবর্তী জনসাধারণের দুর্ভোগ সৃষ্টি হবে। সরকারের আন্তরিক প্রচেষ্টায় সে দুর্ভোগ লাঘব হবে। যানবাহনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। একাধিকবার ভূমিকম্প হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তথ্য-প্রযুক্তি ও যোগাযোগের ক্ষেত্রে যথেষ্ট উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। নারী সমাজ এগিয়ে যাবে নতুন সব প্রযুক্তিনির্ভর ব্যবসায়। দেশকে সঠিকভাবে ডিজিটালাইজড করার জন্য সব প্রচেষ্টা সরকার গ্রহণ করবে। বিদেশ যাত্রার সুযোগ বাড়বে এ বছর।

সরকারি প্রচেষ্টায় আরো অনেক তরুণ-তরুণী বিদেশে চাকরি পাবে। বিদেশিদের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্কের উন্নতি হবে। পররাষ্ট্রনীতিতে সরকারের সাফল্য বিগত বছরগুলোর তুলনায় সকল সাফল্যকে অতিক্রম করে যাবে। বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে আরো মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে। বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান আরো সংহত ও পোক্ত হবে। ২০১৮ সালে বাংলাদেশ ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশেষ সাফল্য অর্জন করতে পারে। ক্রিকেট খেলায় জুয়ার প্রসার ঘটবে। এ বছর ক্ষমতার অপব্যবহার এবং সরকারের কিছু ব্যর্থতার জন্য যথেষ্ট সমালোচনার সম্মুখীন হতে হবে। মন্ত্রিপরিষদে রদবদল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। দ্রব্যমূল্যের বৃদ্ধিতে জনগণের ওপর অতিরিক্ত চাপ পড়বে।

সারা দেশে ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নতি হবে। বিভিন্ন ধরনের দুর্ঘটনা কমে আসবে। নৌ-পরিবহন দুর্ঘটনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অসাধু অফিসারদের কারণে প্রশাসনের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হবে, তবে প্রশাসন সুশৃঙ্খলভাবে দেশ পরিচালনায় সুনাম অর্জন করবে। সুশীল সমাজের কেউ কেউ আন্তর্জাতিক সম্মানও অর্জন করবে বলে আশা করা যায়।

আপনাদের জন্যই রইল ২০১৮ সালের রাশিফল। সংক্ষেপে দেখে নিন, কেমন যেতে পারে আপনার বছরটিÑ

 

২০১৮ সালের মেষ রাশিফল অনুসারে বছরের শুরু ভরপুর শক্তি ও দৃঢ়তার সঙ্গে হবে। সঠিক সিদ্ধান্ত সারা বছর ভালো খবর নিয়ে আসবে। পারিবারিক জীবন বিশৃঙ্খল হতে পারে, আপনি ব্যস্ত সময়সূচি এবং অসময়ে খাওয়ার কারণে বাড়িতে তৃপ্তি এবং সুখের অভাব বোধ করবেন। বছরের প্রথম দুই মাস স্বাস্থ্য ভালো নাও থাকতে পারে। পেশাগত দিকে এই বছর আপনাকে উন্নতির শিখরে নিয়ে যাবে, আপনার আয় বৃদ্ধি পেতে পারে। দূরের যাত্রা ফলপ্রসূ হবে এবং ভালো ফলাফল দেবে। অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ের পর আয় কমতে পারে এবং এই কারণে কঠোর পরিশ্রম দরকার। আপনার সন্তানদের স্বাস্থ্যে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে, তাই সাবধানতা অবলম্বন করুন। বৈবাহিক জীবন আরো সময় ও অঙ্গীকার দাবি করবে এবং সাধারণত আপনি অন্যের হৃদয় জয় করতে সক্ষম হবেন।

 

এই বছর আপনার স্বভাবে কিছু আক্রমণাত্মকতা দেখা দিতে পারে, যা বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে। স্বাস্থ্যের প্রতি নজর দিন। ধীরে ধীরে আপনার মধ্যে ইচ্ছা শক্তির বিকাশ হবে এবং এটা যেকোনো কিছু অর্জন করতে আপনাকে সাহায্য করবে। সাফল্য পাওয়ার জন্য সারা বছর কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। কাজে কিছু হতাশার সম্ভাবনা রয়েছে। অক্টোবরের পর আয় বৃদ্ধি পাবে এবং আপনার বৈবাহিক জীবনে সুখ লাভ হবে। ২০১৮ সালের বৃষ রাশিফল অনুসারে, কিছু ছোট ভ্রমণ ভালো ফল দেবে। আপনি তীর্থযাত্রাতেও যেতে পারেন। সন্তানের ভালো উন্নতি হবে এবং তারা ভালো কিছু প্রদর্শন করবে। বিরোধ এবং সংঘর্ষ এড়িয়ে চলুন, যা সম্পত্তির ক্ষতি করে আপনাকে অসুবিধায় ফেলতে পারে। বছরের প্রথম দুই মাস বিতর্ক বা কলঙ্ক থেকে দূরে থাকুন, এটা আপনার ভাবমূর্তি নষ্ট করবে।

 

মিথুন রাশির জাতকদের প্রকাশ করার ক্ষমতা সারা বছর সাহায্য করবে। তবে প্রথম মাসের মধ্যে আপনি আপনার কথাবার্তায় সংযত রাখুন না হলে বিবাদে জড়িয়ে পড়তে পারেন। আপনি কাজের জন্য আপনার বাড়ি থেকে দূরে যেতে পারেন এবং এর জন্য আপনার ভালো উপার্জনও হতে পারে। কিন্তু এটি ভালোবাসার মানুষজন থেকে আপনাকে দূরে রাখবে। সুতরাং ব্যক্তিগত জীবন এবং পেশাগত জীবনের মধ্যে ভারসাম্য রাখার প্রয়োজন রয়েছে। ২০১৮ সালে মিথুন রাশির জ্যোতিষ গণনা অনুসারে, সন্তানদের স্বভাবে চঞ্চলতা বজায় থাকবে। কিন্তু তারা নতুন জিনিস শিখতে আগ্রহী হবে এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে তারা ভালো প্রদর্শন করবে। যদি আপনি অবিবাহিত হন ডিসেম্বরের মাঝামাঝি পর্যন্ত আপনি মনের মতো জীবনসঙ্গীর সঙ্গে বন্ধনে জড়িয়ে পড়তে পারেন। বছরের শেষ ভাগে ব্যয় অত্যধিক হতে পারে। আপনার স্বাস্থ্য ওঠাপড়া করতে পারে এবং বায়ুর রোগ, গাঁটে ব্যথা ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিতে পারে।

 

২০১৮ সালের কর্কট রাশিফল অনুযায়ী, আপনি উৎসাহে পরিপূর্ণ থাকবেন। নেতৃত্ব প্রদান করতে ইচ্ছুক হবেন। কিছু প্রিয়জন আপনাকে ঠিক করে বুঝতে চাইবে না, তাই সম্পর্কে তিক্ততা আসতে পারে। পারিবারিক জীবন সৌহার্দ্যপূর্ণ হবে, তবে ছোট ছোট বাধাবিপত্তি থাকবে। আপনি খ্যাতি লাভ করবেন এবং কর্মক্ষেত্রে আপনার সম্মান বাড়বে। সামাজিক ক্ষেত্রেও প্রতিষ্ঠা বাড়বে। স্বাস্থ্যের ওপর সম্পূর্ণ মনোযোগ হওয়া উচিৎ, কারণ সংক্রামক ব্যাধি হতে পারে। বৈবাহিক জীবনে সুখের অভাব বোধ করতে পারেন। বিবাহিত জীবন বাঁচাতে খারাপ মন্তব্য এড়িয়ে চলতে হবে। ব্যয় অত্যধিক হতে পারে। আপনি উপার্জন ভালো করবেন, কিন্তু অত্যধিক ব্যয় নিয়ন্ত্রণ করা উচিৎ। না হলে এটা আপনার আর্থিক দিকে আসামঞ্জস্যতা সৃষ্টি করবে। শিক্ষার্থীরা এই সময় ভালো প্রদর্শন করবে এবং শিশুদের সংকল্প-শক্তি বৃদ্ধি পাবে। আপনি বিলাসবহুল জীবনযাপন করবেন কারণ সারা বছর আপনার ভাবনার কেন্দ্রবিন্দু সুখ-সুবিধা থাকবে। এর জন্য আপনি কঠোর পরিশ্রমও করবেন। সর্বোপরি, এই বছর খুবই ভালো কাটবে, কিন্তু কিছু ঝুঁকির সম্মুখীন আপনি হতে পারেন।

 

২০১৮ সালের সিংহ রাশির জ্যোতিষ গণনা অনুযায়ী, আপনি ধর্মীয় এবং আধ্যাত্মিক বিষয়ে আগ্রহী হবেন। তীর্থযাত্রাও করতে পারেন। জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে ভাই-বোনের স্বাস্থ্য নিয়ে ভুগতে হতে পারে। আপনার বীরত্ব বৃদ্ধি পাবে। প্রেম জীবনে মিশ্র ফল পাবেন। একদিকে আপনি যেমন কিছু ভুল বোঝাবুঝির সম্মুখীন হবেন, তেমনি অন্যদিকে ভালোবাসার মানুষের ভালোবাসা উপভোগ করবেন। আপনার কাজ আপনাকে সাফল্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। যাইহোক, আপনি অলসতাকে এড়িয়ে চলবেন। বৈবাহিক জীবনে সুখ বৃদ্ধি পাবে। আপনি অনুভব করবেন যে, আপনার জীবন দ্রুত এগিয়ে চলছে এবং বিভিন্ন পরিস্থিতি আপনার রাস্তায় আসবে। আপনি আর্থিক দিক দিয়ে উন্নতি করবেন। আপনার সন্তানদের অতিরিক্ত প্রচেষ্টার প্রয়োজন রয়েছে এবং আপনাকে তাদের বিশেষ যতœ নিতে হবে। এছাড়া আপনি তাদের প্রচেষ্টাকে সমর্থন করবেন। বিদেশ ভ্রমণের সুযোগ খুব উজ্জ্বল। জানুয়ারি থেকে ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে গর্ভবতী মহিলাদের বিশেষ যতœ নেওয়া উচিৎ। অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ের পর, পারিবারিক জীবনে ও পেশাগত জীবনে ভালো পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

 

২০১৮ সালের কন্যা রাশিফল অনুসারে আপনার জন্য উচ্চ শিখরে পৌঁছানোর বছর। আপনার কাছে কোনো ভালো সুযোগ আসবে, যাতে আপনি ভালো আর্থিক লাভ পাবেন। আপনার সামাজিক ক্ষেত্র খুবই সক্রিয় হবে এবং সামাজিকভাবে আপনি প্রতিষ্ঠা লাভ করবেন। বন্ধু এবং প্রিয়জনের সঙ্গে ভালো সময় কাটাবেন। শিক্ষার্থীরা মনোযোগের অভাব বোধ করবে। তাই কঠিন পরিশ্রম করলে তারা সাফল্য পেতে পারে। আপনাকে আপনার সন্তানের বেশি করে যতœ নিতে হবে, কারণ কিছু স্বাস্থ্যজনিত সমস্যা তাদের দেখা দিতে পারে। পেশাগত জীবনের জন্য সময়টা ভালো। আপনার বিভিন্ন কাজে সাফল্য পাবেন। অনেকদিনের কোনো ইচ্ছা পূরণ হতে পারে। সারা বছর ভালো আর্থিক লাভ হবে। জানুয়ারিতে কিছু অপ্রত্যাশিত লাভ আসতে পারে। অক্টোবরের পর, এই বৃদ্ধি আরো বাড়বে। আপনি আপনার জীবনসঙ্গীর মাধ্যমে লাভ পেতে পারেন, কিন্তু তার শক্তির অভাব দেখা দিতে পারে।

 

২০১৮ সালের তুলা রাশিফল অনুযায়ী, বছরের শুরু দীপ্তিময় হবে। কিন্তু ব্যবহারে আক্রমণতা থাকবে, যাকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। বৈবাহিক এবং পারিবারিক জীবনে সুখ-শান্তির জন্য এটা দরকার। জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত স্বাস্থ্য সম্পর্কিত কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। কথাবার্তা ভেবেচিন্তে বলা উচিৎ, না হলে কেউ আপনার কথার জন্য আঘাত পেতে পারে। এই বছর কর্মক্ষেত্রে বিচার মূর্ত রূপ নেবে, যা আপনার জন্য অনুকূল হবে। অলসতা থেকে দূরে থাকুন। সহকর্মীদের ব্যবহার সাধারণ থাকবে। আপনাকে আপনার ক্ষমতা প্রয়োগ করতে হবে। জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত আয় বৃদ্ধি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এরপর আপনার প্রচেষ্টা নতুন ক্ষেত্রের দরজা খুলবে।

 

২০১৮ সালের বৃশ্চিক রাশিফলের মতে, এই বছর কিছু চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসবে। যদি আপনি দৃঢ়তার সঙ্গে এটাকে নিতে পারেন, তাহলে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবেন। জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত আপনাকে স্বাস্থ্য নিয়ে সজাগ থাকতে হবে। এরপর স্বাস্থ্যের উন্নতি হবে এবং শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। বিরোধীদের জয় করবেন। এই বছর বিশেষত অক্টোবর পর্যন্ত আর্থিক দিক দিয়ে সচেতন থাকুন। অত্যধিক ব্যয় আপনার অর্থনৈতিক অবস্থাকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। অক্টোবরের পর, দক্ষতার সঙ্গে ভালো ফল দেখা যাবে। তবে বিনিয়োগ বুঝে-শুনে করতে হবে। এই বছর ভালো উপার্জন পেতে কঠোর পরিশ্রম করার জন্য তৈরি থাকুন।

 

২০১৮ সালের ধনু রাশিফলের গণনা অনুযায়ী, এই বছর আপনি জীবনে উন্নতির জন্য অনেক সুযোগ পাবেন। আপনার সংকল্পের দৃঢ়তা আপনাকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে। মার্চ মাস পর্যন্ত আয় বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এরপর মে মাস পর্যন্ত ব্যয় বৃদ্ধি হতে পারে, কিন্তু তারপর পুনরায় আগের অবস্থায় ফিরে আসবে। সুতরাং টাকা-পয়সার চিন্তা করবেন না। আয়ের নতুন উৎস খোঁজার দিকে আপনার প্রবণতা থাকবে এবং একাধিক উৎস থেকে অর্থ উপার্জন করতে সফল হবেন। শনিদেব কঠোর পরিশ্রম করার জন্য প্রেরণা দেবেন। তবে কাজে প্রয়োজনের অতিরিক্ত ব্যস্ততা ভালো নয় এবং আপনাকে নিজের স্বাস্থ্যের দিকেও নজর দিতে হবে। মার্চ থেকে মে মাস পর্যন্ত কিছু কঠিন পরিস্থিতি দেখা দিতে পারে এবং অক্টোবরের পর আপনি স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। সাবধানে গাড়ি চালাবেন। সন্তানরা পরিশ্রমী হবে এবং শিক্ষার্থীরা ভালো কিছু প্রদর্শন করবে।

 

২০১৮ সাল এমন একটা বছর যেখানে আপনি জীবনের গভীরতা সম্পর্কে বুঝতে পারবেন। একদিকে আপনার ব্যয় যেমন বৃদ্ধি পাবে এবং আপনি অনুভব করবেন আর্থিক অবস্থা খারাপ হচ্ছে; অপরদিকে আপনি স্বাস্থ্য নিয়েও সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। কিন্তু কিছু বিদেশি যোগাযোগের মাধ্যমে আপনার আয় বৃদ্ধি পাবে। ২০১৮ সালের বৈদিক জ্যোতিষ অনুসারে, আপনার মধ্যে আধ্যাত্মিকতার প্রবণতা বাড়বে এবং কিছু সময়ের জন্য পার্থিব জগত থেকে দূরত্ব আপনি অনুভব করতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে কর্তৃত্ব লাভ করবেন, কিন্তু যেকোনো ধরনের ষড়যন্ত্র থেকে আপনাকে দূরে থাকতে হবে। আপনার কাজের দায়িত্ব এবং সম্মান বৃদ্ধি পাবে এবং একটি গুরুত্বপূর্ণ নতুন প্রকল্প হাতে আসবে। শিক্ষার্থীদের অবস্থা ভালো থাকবে এবং শিক্ষা ও নতুন জিনিস শেখার দিকে ঝোঁক বাড়বে।

 

কুম্ভ রাশির জাতকদের জন্য ২০১৮ সালের রাশিফল অনুযায়ী আপনার সিদ্ধান্ত এই বছর উন্নতির ভিত্তি স্থাপন করবে। ধনার্জন বৃদ্ধির ওপর আপনার মুখ্য মনোযোগ থাকবে। কঠিন প্রচেষ্টা আপনাকে লাভবান করবে। আর্থিক অবস্থা সুদৃঢ় হবে। দূর ভ্রমণও এই বছর হতে পারে। আপনি বুদ্ধিমত্তাপূর্ণ এবং ফলদায়ক সিদ্ধান্ত নেবেন। যদি একটু খেয়াল রাখেন তো আপনার স্বাস্থ্যও এই বছর ভালো থাকবে এবং পুরনো রোগ থেকে মুক্তি আপনি পেতে পারেন। গুরুজনরা প্রশংসা আপনি প্রাপ্ত করবেন। বিবাহিত জীবনে স্নেহ এবং ভালোবাসা থাকবে। তবে প্রথম দুই মাস একটু ঝুঁকিপূর্ণ থাকবে, কারণ কিছু ঝগড়া বা জীবনসঙ্গীর স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিতে পারে।

 

মীন রাশির জাতকরা সংবেদনশীল হন, ভেতর এবং বাইরে দু’দিক থেকেই। সারা বছর, বিশেষত অক্টোবর পর্যন্ত স্বাস্থ্যের প্রতি বিশেষ যত্ন নেওয়া উচিত। তারপর তারা সুন্দর জীবন উপভোগ করতে সক্ষম হবে। প্রয়োজনের অতিরিক্ত মানসিক চাপ এবং অনেক বেশি কাজকর্ম আপনার শরীর খারাপ করতে পারে। কর্মক্ষেত্রে আকাক্সিক্ষত ফলাফল পাওয়ার জন্য আপনি অতিরিক্ত প্রচেষ্টার ওপর বিশ্বাস রাখেন। আর্থিক দিক দিয়ে জানুয়ারি ঝুঁকিপূর্ণ থাকবে। এমনকি ফেব্রুয়ারিতেও যেকোনো বড় বিনিয়োগ স্থগিত রাখা উচিত। এরপর থেকে আপনার আর্থিক উন্নতি গতি পাবে এবং আপনার আয় বৃদ্ধি পাবে। অবাঞ্ছিত ভ্রমণ হতে পারে। বিবাহিত জীবন খুব ভালো হবে এবং আপনার জীবনসঙ্গী আপনাকে বিভিন্নভাবে সাহায্য করবে।

"