ভালুকায় স্ত্রীকে খুন করে পালিয়েছেন স্বামী

প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৭, ০০:০০

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

ময়মনসিংহের ভালুকায় গত রোববার রাতে উপজেলার মেদুয়ারী ইউনিয়নের কৈয়াদী গ্রামে পারিবারিক কলহকে কেন্দ্র করে স্ত্রী জেসমিন আক্তারকে (৪৫) কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে খুন করেছেন তারই স্বামী আবুল কাশেম। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। ঘাতক স্বামী পলাতক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আবুল কাশেম এলাকার ছিচকা চোর হিসেবে পরিচিত। তিন দিন যাবত স্বামী-স্ত্রীর মাঝে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হচ্ছিল। এদিন সকালে দুজনের মধ্যে খুব ঝগড়া হয়। জেসমিন রাতে ঘুমিয়ে পড়লে রাত অনুমান ১১টার দিকে আবুল কাশেম ঘরে ঢুকে ঘুমন্ত জেসমিনের মাথায় কুড়াল দিয়ে কুপালে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানার পুলিশ রাতেই লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। ঘটনার পর থেকে ঘাতক স্বামী পালাতক।

নিহতের বড় ভাই আজিজুর রহমান সবুজ জানান, আবুল কাশেম তার বোনের ওপর সব সময় অত্যাচার করত। ছেলেমেয়েরা টাকা না দিলে বোনকে মারধর করত। তিনি কাশেমের বিচার চেয়েছেন।

২নং মেদুয়ারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জেসমিন নাহার জানান, আবুল কাশেম এলাকায় চোর হিসেবে পরিচিত। এলাকায় চুরি, ডাকাতি করাই তার কাজ ছিল। খারাপ কাজের জন্য এর আগে তাকে গ্রাম থেকে বের করে দেওয়া হয়। সে এলাকার লোক নয়, এখানে সে ঘরজামাই হিসেবে থাকত। পারিবারিক কলহের কারণে কাশেম তার স্ত্রীকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে খুন করেছে। ভালুকা মডেল থানার এস আই মো. আব্দুল হান্নান জানান, লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জন্য এই খুন হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

"