সেনবাগে প্রতিবন্ধী ধর্ষণ

আলোচিত প্রধান আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

প্রকাশ : ১২ জুলাই ২০২০, ০০:০০

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সেনবাগে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামি আকরাম হোসেন পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছে। গত শুক্রবার রাত আড়াইটায় উপজেলার অর্জুনতলা ইউনিয়নের উত্তর মানিকপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আকরাম মানিকপুর গ্রামের আবদুল গফুরের ছেলে। বন্দুকযুদ্ধে তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি, দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সেনবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল বাতেন মৃধা বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেনবাগের আলোচিত প্রতিবন্ধীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামি আকরামকে গ্রেফতার করতে পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশ উপজেলার অর্জুনতলা ইউনিয়নের উত্তর মানিকপুর গ্রামে পৌঁছালে আকরাম ও তার সহযোগীরা পুলিশের ওপর গুলি ছোড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়লে আকরামের সহযোগীরা পালিয়ে যায়।’

পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আকরামকে উদ্ধার করে। তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি আরো জানান, আহত পুলিশ সদস্যরা সেনবাগ সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আর নিহতের লাশ বর্তমানে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

পুলিশ জানায়, গত ৬ জুন সকালে বাড়ির সামনে থেকে (১৪) এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে তুলে পার্শ্ববর্তী কবরস্থানে নিয়ে দলবদ্ধ ধর্ষণ করে আকরাম, ফারুক ও ফাহিমসহ কয়েকজন বখাটে। এ ঘটনায় ১১ জুন রাতে ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে সেনবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ফাহিম ও ফারুককে গ্রেফতার করা হয়। তবে প্রধান আসামি আকরাম পলাতক ছিল।

 

"