ভারতে লকডাউন ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়াতে বললেন মুখ্যমন্ত্রীরা

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

আপাতত ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির জন্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে পরামর্শ দিয়েছেন বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। ওড়িষ্যার পর পাঞ্জাব এরই মধ্যে ১ মে পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছে। রাজস্থান, কর্ণাটক, কেরালাও তেমনটাই চিন্তা ভাবনা করছে। এর মধ্যে গতকাল শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের ভিডিও কনফারেন্সে, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরাসরি প্রস্তাব দিয়েছেন ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির কথা জানা গেছে, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও তাতে সায় দিয়েছেন। প্রয়োজনে সামাজিক সংক্রমণরোধে হটস্পটের সংখ্যা বৃদ্ধি এবং আরো কড়া নজরদারির বিষয়টি বৈঠকে গুরুত্ব পেয়েছে। এখনো পর্যন্ত খবর, করোনা মোকাবিলায় আরো মেডিকেল ইকুইপমেন্টস-সহ কেন্দ্রীয় সাহায্যের বিষয়টিও গুরুত্ব পেয়েছে এই বৈঠকে। ভিডিও কনফারেন্সে যোগী আদিত্যনাথ, পিনারাই বিজয়ন, উদ্ধব ঠাকরে, জগনমোহনসহ বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী রয়েছেন। মাস্ক পরে বৈঠকে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী সবাইকে আশ্বস্ত করে বলেছেন যে, তিনি সবার সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়তে প্রস্তুত। ২৪ ঘণ্টা সাত দিন সজাগ রয়েছেন করোনা মোকাবিলায়। এদিকে করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গেও বেশ কয়েকটি হটস্পট চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে রাজ্যের ১০টি এলাকাকে করোনা হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করে সম্পূর্ণ লকডাউনের আওতায় আনার পরিকল্পনা চলছে। গত তিন সপ্তাহের মধ্যে যেসব এলাকা থেকে করোনা আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে, সেই সব এলাকাকেই হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব এলাকা থেকে বেরনো ও ঢোকার পথগুলো চিহ্নিত করে সিল করে দেওয়ার কাজ চলছে। যেসব এলাকাকে করোনা হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে সেগুলো হলো আলিপুর, পন্ডিতিয়া রোড, মুদিয়ালি, ভবানীপুর, বড়বাজার, নয়াবাদ, হাওড়ার শিবপুর, উত্তর ২৪ পরগনার বেলঘরিয়া, পূর্ব মেদিনীপুরের এগরা এবং কালিম্পং। সাধারণ লকডাউনের থেকে সম্পূর্ণ লকডাউন আরো কঠিন হবে বলে জানিয়েছেন রাজ্যের মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা।

 

"