চসিক নির্বাচন

এবার আ.লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত ১৯ কাউন্সিলর

প্রকাশ : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০

মিনহাজুল ইসলাম, চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে ব্যর্থ হয়েছেন কয়েকজন কাউন্সিলর। অন্যদিকে পরিবারের রাজনৈতিক ঐতিহ্যের কারণে সক্রিয় রাজনীতি না করেও কেউ কেউ মনোনয়ন পেয়েছেন। আবার একেবারে তৃণমূলের রাজনীতি করে চমক দেখিয়েছেন কয়েকজন। ব্যক্তি ও পরিবারকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে বলে মনে করেন নগর আওয়ামী লীগ নেতারা।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরের পুরোনোদের মধ্যে মনোনয়ন পেয়েছেন ২৭ জন। এবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে বাদ পড়েছেন পুরোনো ১৯ কাউন্সিলর। কাউন্সিলর পদে মনোনয়নবঞ্চিত বর্তমান কাউন্সিলররা হলেন ১ নম্বর পাহাড়তলি ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর তৌফিক আহমদ চৌধুরীর পরিবর্তে মনোনয়ন পেয়েছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি গাজী মো. শফিউল আজিম। ২ নম্বর জালালাবাদ ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর মো. সাহেদ ইকবাল বাবুর পরিবর্তে নগর যুবলীগের সদস্য মোহাম্মদ ইব্রাহিম। ৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলি ওয়ার্ডে মো. জহুরুল আলম জসিমের পরিবর্তে পাহাড়তলি থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরল আবছার মিয়া। ১১ নম্বর দক্ষিণ পাহাড়তলি ওয়ার্ডে মোরশেদ আকতার চৌধুরীর পরিবর্তে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইসমাইল মনোনয়ন পেয়েছেন। ১২ নম্বর সরাইপাড়া ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর মো. সাবের আহমদের পরিবর্তে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মো. নুরুল আমিনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। ১৩ নম্বর পাহাড়তলি ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন হিরণের পরিবর্তে নগর যুবলীগের সদস্য মো. ওয়াসিম উদ্দিন চৌধুরী মনোনয়ন পেয়েছেন। ১৪ নম্বর লালখানবাজার ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর আবুল ফজল কবির আহমদ মানিকের পরিবর্তে মনোনয়ন পেয়েছেন নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য আবুল হাসনাত মো. বেলাল। ১৯ নম্বর দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর ইয়াছিন চৌধুরী আছুর পরিবর্তে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মো. নুরুল আলম। ২৬ নম্বর উত্তর হালিশহর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর মো. আবুল হাশেমের পরিবর্তে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোহাম্মদ হোসেন। ২৭ নম্বর দক্ষিণ আগ্রাবাদ ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর এইচ এম সোহেলের পরিবর্তে মনোনয়ন পেয়েছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মো. শেখ জাফরুল হায়দার চৌধুরী। ২৮ নম্বর পাঠানটুলী ওয়ার্ডে মো. আবদুল কাদেরের পরিবর্তে মনোনয়ন পেয়েছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম বাহাদুর। ৩০ নম্বর পূর্ব মাদারবাড়ি ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর মাজহারুল ইসলাম চৌধুরীর পরিবর্তে মনোনয়ন পেয়েছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আতাউল্লাহ চৌধুরী। ৩১ নম্বর আলকরণ ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর তারেক সোলেমান সেলিমের পরিবর্তে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদস্য মো.আবদুস সালাম। ৩৩ নম্বর ফিরিঙ্গি বাজার ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লবের পরিবর্তে নগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন। ৪০ নম্বর উত্তর পতেঙ্গা ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর হাজী মো. জয়নাল আবেদীনের পরিবর্তে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুল বারেক। ৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর জেসমিন পারভীন জেসীর পরিবর্তে মনোনয়ন পান ৪২ নম্বর ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জোহরা বেগম। ৯, ১০ ও ১৩ নম্বর ওয়ার্ড বর্তমান কাউন্সিলর আবিদা আজাদের পরিবর্তে নগর আওয়ামী লীগের সদস্য তছলিমা বেগম নুরজাহান মনোনয়ন পান। ১৬, ২০ ও ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর আনজুমান আরা বেগমের পরিবর্তে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের মহিলা সম্পাদিকা রুমকি সেনগুপ্ত। ১২, ২৩ ও ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর ফারহানা জাবেদের পরিবর্তে ২৪ নম্বর মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য নুর আক্তার প্রমা মনোনয়ন পান। ১১, ২৫ ও ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে জেসমিন খানমের পরিবর্তে নগর আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক হুরে আরা বেগম মনোনয়ন পেয়েছেন। ২৮, ২৯ ও ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডে ফেরদৌসি আকবরের পরিবর্তে মনোনয়ন পেয়েছেন ৩৮ নম্বর ওয়ার্ড ইউনিট আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদিকা জিন্নাত আরা বেগম।

 

 

"