৬ মুক্তিযোদ্ধার ভাতা পুনর্বহালে হাইকোর্টের নির্দেশ

প্রকাশ : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক

মাদারীপুর, ফরিদপুর ও গোপালগঞ্জের ছয়জন মুক্তিযোদ্ধার ভাতা পুনর্বহালের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পৃথক দুটি রিট আবেদনের ওপর জারি করা রুল যথাযথ ঘোষণা করে গতকাল রোববার বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।

আদালতে মুক্তিযোদ্ধাদের রিটের পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র অ্যাডভোকেট মো. নূরুল ইসলাম মাতুব্বর ও অ্যাডভোকেট মো. জাহিদ চৌধুরী জনি। পরে অ্যাডভোকেট মো. জাহিদ চৌধুরী জনি বলেন, ‘গত শনিবার ছিল বুদ্ধিজীবী দিবস এবং আজ সোমবার বিজয় দিবস। এর ফলে মুক্তিযোদ্ধা সূর্য সন্তানদের অধিকার পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হবে বলে বিশ্বাস করছি। এ কারণে রায় ঘোষণাকালে আদালতও বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের দেশের সূর্য সন্তান। সঠিক প্রক্রিয়ায় যাচাই-বাছাই না করে কোনো মুক্তিযোদ্ধার নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়া যাবে না।’

এর আগে ২০১৭ সালে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে ভুয়া সনদধারী মুক্তিযোদ্ধাদের খুঁজে বের করে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে একটি রিপোর্ট দেওয়া হয়। পরে মন্ত্রণালয় তাদের ৪৭তম সভায় ওই রিপোর্টটির অনুমোদন করে গেজেট প্রকাশ করে। ফলে কোনো রকম আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দেওয়ায় কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধার ভাতা বন্ধ হয়ে যায়। পরে এসব মুক্তিযোদ্ধা একই বছরের নভেম্বরে গেজেটটির বৈধতা প্রশ্নে হাইকোর্ট রিট আবেদন করেন। মাদারীপুরের মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান ফকিরসহ ফরিদপুর ও গোপালগঞ্জের ছয় মুক্তিযোদ্ধা বাদী হয়ে রিটটি দায়ের করেন।

আদালত ওই রিটের শুনানি নিয়ে রিটকারী ছয় মুক্তিযোদ্ধার ভাতা কেন পুনর্বহাল করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিলেন। এরপর ওই রুল যথাযথ ঘোষণা করে রায় দিলেন হাইকোর্ট। এ আদেশের ফলে এই ছয়জন মুক্তিযোদ্ধা ভাতা পাবেন বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

 

 

"