রাসিক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ

প্রকাশ : ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০

বগুড়া প্রতিনিধি

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক) মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, বিদ্যুৎ উৎপাদন, তথ্যপ্রযুক্তি, যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। ১১ বছর আগে কেই ভাবেনি পদ্মা সেতু হবে, সড়ক মহাসড়কে ছয়টি লেন, আটটি লেন হবে, আকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ হবে। আজ এসব উন্নয়ন কাজ দৃশ্যমান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। গতকাল শনিবার দুপুরে বগুড়া পৌর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র বলেন, বিএনপি করে আঁতাত, আর দোষ হয় শেখ হাসিনার। ভারতের কাছে থেকে আওয়ামী লীগ ন্যায্য হিস্যা নেওয়ার চেষ্টা করে আর বিএনপি আঁতাত করে। বিএনপি জোট মিথ্যাচার করে সবসময়। তাদের সময়ে দেশ পিছিয়ে যায় আর আওয়ামী লীগ দেশকে সামনে এগিয়ে নেয়। ’৯০-এর পর বিএনপি ক্ষমতায় এসে কৃষক হত্যা, শ্রমিক হত্যাসহ দেশে মিল-কারখানা বন্ধ করে দিয়েছিল। খালেদার আমলে এশিয়ার বৃহৎ পাটকল আদমজী বন্ধ করে হাজার হাজার শ্রমিক বেকার করেছিল। ওই সময়ে বাংলাদেশে পাটকল বন্ধ হলেও ভারতের কলকাতাসহ পশ্চিবঙ্গে ১৭টি পাটকল চালু হয়।

সংগঠনের পৌর কমিটির আহ্বায়ক রফি নেওয়াজ খান রবিনের সভাপতিত্বে সম্মেলন উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. মকবুল হোসেন। প্রধান বক্তা ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আ.লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন মুকুল, যুগ্ম সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, টি জামান নিকেতা, মঞ্জুরুল আলম মোহন, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কুমার রায়, আসাদুর রহমান দুলু, জাকির হোসেন নবাব, সুলতান মাহমুদ খান রনি, আল রাজি জুয়েল, আলমগীর বাদশা, আবদুস সালাম, শুভাশীষ পোদ্দার লিটন, নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, লাইজিন আরা লীনা প্রমুখ।

এ সময় পৌর কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক শাহাদৎ হোসেন শাহীন, মিজানুর রহমান বকুল, শেখ শামীম, ওবায়দুল হাসান ববি, অ্যাডনিস তালুকদার বাবুসহ সংগঠনের জেলা ও পৌর শাখার বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য কাউন্সিলর তালিকায় অনিয়মের কারণে পৌর আওয়ামী লীগের সম্মেলন স্থগিত করে ২০১৩ সালের নভেম্বর মাসে। সম্মেলন স্থগিত হয়ে গেলে আহ্বায়ক কমিটি গঠিত হয় গত ছয় বছর ধরে আহ্বায়ক কমিটি দিয়েই চলছে গুরুত্বপূর্ণ এই ইউনিটের কাজ। এবার এই ইউনিটের সম্মেলন করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন হতে যাচ্ছে। সভাপতি পদে রফি নেওয়াজ খান রবিন একক প্রার্থী হন। সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছেন চারজন। ভোটার আছেন ৪৪৯ জন।

"