কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল

যদি বাংলায় জন্মাতে পারতাম : শাহরুখ

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০

পার্থ মুখোপাধ্যায়, কলকাতা থেকে

কলকাতা তার কাছে বরাবরই খুব স্পেশ্যাল, তার জীবনের অনেকটা জুড়েই আছে বাংলা- ‘যদি বাংলায় জন্মাতে পারতাম’, বলেছেন বাংলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর শাহরুখ খান। পঁচিশে পা দিল কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। গতকাল শুক্রবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হলো কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল। শাহরুখও বলেছেন, আমাদের সবার একজোট হয়ে কাজ করার সময় এসেছে। কোনো ধরনের বিচ্ছিন্নতাবাদ যেন আমাদের ওপর প্রভাব ফেলতে না পারে। সেই সঙ্গে বারবার বলেছেন তার মমতা দিদির কথা। রাখি গুলজারও বলেছেন, সবাইকে খুশি রেখে কাজ করা খুব সহজ কাজ নয়। উঠে এসেছে বাংলার আন্তরিকতার প্রসঙ্গ।

এ বছর ফিল্ম কমিটির চেয়ারম্যান রাজ চক্রবর্তী। রাজ এবং রাজের পুরো টিমের প্রশংসা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ বছরের উৎসবের থালি গার্ল শ্রাবন্তী। বাংলা সবাই নিয়ে চলতে চায়। এটাই বাংলার গর্ব। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথায় ঘুরেফিরে এসেছে ঋতুপর্ণ ঘোষের প্রসঙ্গও।

কলকাতা মানেই আড্ডা, খাওয়া এবং সিনেমা। দুর্গাপুজো, কালীপুজো, ভাইফোঁটা, জগদ্ধাত্রী পুজো এবারের মতো সমাপ্ত। কিন্তু শেষ হয়নি উৎসবের মৌসুম। শুরু হলো ২৫তম কলকাতা আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল। উপস্থিত হয়েছেন দেশ-বিদেশের খ্যাতনামা ব্যক্তিরা। শারীরিক অসুস্থতার কারণে উপস্থিত হতে পারেননি অভিতাভ বচ্চন। এসেছেন শাহরুখ খান। যিশু সেনগুপ্তের হাত ধরে এসেছেন মহেশ ভাট। এসেছেন রাখি গুলজার।

রাখি গুলজার আবার শুরু করেছেন শাহরুখ কিং খানকে বাংলা শেখাতে। শাহরুখকে বলতে বলেছেন, ও আমার দেশের মাটি তোমার পায়ে ঠেকাই মাথা। বাধ্য ছেলের মতো বলে গিয়েছেন শাহরুখ, মানে না বুঝেই। বলা শেষ হয়ে গেলে শাহরুখের মজার মন্তব্য, বলে তো দিলাম, কিন্তু কী যে বললাম কিছুই বুঝলাম না। এরপরই দর্শকমহলে হাসির রোল। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় খুব সুন্দর করে বক্তব্য রেখেছেন। বলেছেন, আজ বাংলা সিনেমার ১০০ বছর পূর্ণ হলো। প্রায় ১৬ বছর পর বাংলার মাটিতে পা রাখলেন রাখি গুলজার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নাম না করেই কেন্দ্রকে তোপ দেগেছেন মহেশ ভাট।

জোর করে হিন্দি চাপিয়ে দেওয়ার বিরুদ্ধে সোচ্চার তার কণ্ঠ।

"