খুলনায় শাহিন বাহিনীর চাঁদাবাজি, ব্যাসায়ীরা অসহায়

প্রকাশ : ০৬ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

খুলনা ব্যুরো

খুলনায় শাহিন বাহিনীর চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। এ বাহিনীর সদস্যরা মহানগরীর ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজি করছে। এই বাহিনীটির আতঙ্কে এক ব্যবসায়ী ও তার পরিবার অসহায় হয়ে পড়েছে।

গতকাল সোমবার খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ তথ্য জানান ব্যবসায়ী মো. সাইফুল ইসলাম।

সাইফুল ইসলাম বলেন, মহানগরীতে বড় ভাই শাহিন নামের এক সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজের আবির্ভাব ঘটেছে। নগরীর ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে নীরব চাঁদাবাজিতে নেমেছে শাহিনসহ তার ক্যাডার বাহিনী। যার শিকার আমি নিজেও। চাঁদা না দিয়ে ব্যবসা করতে পারব নাÑ এমন হুমকি ও ফরমান জারি করায় চরম আতঙ্কে বসবাস করছি। শাহিনের সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে রফিকুল ইসলাম ওরফে রাঙ্গা রফিক ও সোনাডাঙ্গা বাস টার্মিনাল এলাকার একসময়ের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হিরুর অন্যতম সহযোগী রবিউল ইসলামসহ বেশ কয়েকজন রয়েছে। সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় এই বাহিনীর হোতা শাহিনসহ ওই গ্রুপের ১০-১২ জনকে আসামি করে মামলা করি। মামলার ২ নম্বর আসামি মাসুমকে পুলিশ গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মামলার অন্য আসামিরা মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে। আমার সন্তানের স্কুলে যাওয়া বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় আমি ৩ আগস্ট রাতে সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় আমার ও পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরি করি।

 

"