বিয়ে করতে গিয়ে ভুয়া এএসআই আটক

প্রকাশ : ২১ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে পুলিশের উপসহকারী পরিদর্শক (এএসআই) পরিচয়ে বিয়ে করতে গিয়ে ধরা পড়েছেন শরিফুল ইসলাম (২৭) নামে এক তরুণ। তিনি পার্শ¦বর্তী বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার কুশারঘোপ (মুকন্দপুর) গ্রামের আশরাফুল ইসলামের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার গুজিয়াপাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের মেয়ে জুলিকে (১৯) পুলিশের এএসআই পরিচয় দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেন শরিফুল ইসলাম। পরবর্তী সময়ে এ প্রস্তাবে রাজি হয়ে জুলির পরিবার তার সঙ্গে শুক্রবার বিয়ের দিন ধার্য করে। বন্যার কারণে জুলির বাবার বাড়ির পরিবর্তে গোবিন্দগঞ্জ পৌর এলাকার পান্থাপাড়া গ্রামে খালার বাড়িতে বিয়ের আয়োজন করা হয়। জুলির বাবা জাহাঙ্গীর আলম জানান, বিয়ের আগ মুহূর্তে সোনাতলা এলাকায় খোঁজখবর নিতে গিয়ে জানতে পারেন কথিত শরিফুল ইসলাম একজন ভুয়া পুলিশ। এর আগেও তিনি ভুয়া পুলিশ সেজে আরো দুটি বিয়ে করেছেন। এ ঘটনা জানার পর জাহাঙ্গীর আলম বিষয়টি গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশকে অবগত করেন।

এদিকে শরিফুল ইসলাম শুক্রবার রাতে বর সেজে তার বন্ধু আনসারুল ইসলামকে নিয়ে বিয়ে করতে পান্থাপাড়ায় এলে পুলিশ খবর পেয়ে বিয়ের আসর থেকে তাকে আটক করে।

পরিস্থিতি বুঝতে পেরে আনসারুল পালিয়ে যান।

গোবিন্দগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আফজাল হোসেন ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, এ বিষয়ে জুলির বাবা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে শরিফুল ইসলাম ও আনসারুল ইসলামের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করেছেন। শনিবার দুপুরে শরিফুলকে আদালতের মাধ্যমে গাইবান্ধা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

"