প্রধান সড়কে রিকশা না চালানোর আহ্বান মেয়র আতিকের

প্রকাশ : ০৭ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানোর লক্ষ্যে রাজধানীর প্রধান সড়কগুলোতে রিকশা না চালানোর আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। গতকাল শনিবার রাজধানীর গুলশানে নগর ভবনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, রিকশা মালিক সমিতিসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে আয়োজিত এক সভায় তিনি এ আহ্বান জানান।

এ সময় মেয়র আতিক বলেন, দেশ যত এগিয়ে যাচ্ছে, উন্নত হচ্ছে, তত জনসংখ্যার হার বাড়ছে। আমরা ডিজিটাল হওয়ার চেষ্টা করছি, কিন্তু আমরাই এতদিন ম্যানুয়াল ছিলাম। আমাদের এমন পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য মেকানিক্যাল সিস্টেমে যেতে হবে। তাই একটি সড়কে ম্যানুয়াল এবং মেকানিক্যাল সিস্টেম একই সঙ্গে চলতে পারে না। এজন্য আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যেসব সড়কে যান্ত্রিক পরিবহন চলে সেসব সড়কে রিকশা চলতে দেওয়া হবে না। এর কারণে শুধু যে যানজট হচ্ছে তা নয়, দুর্ঘটনারও শঙ্কা থাকে।

রিকশা শুধু নির্দিষ্ট কিছু সড়কে চলাচলের জন্য নিষিদ্ধ হচ্ছে, ফলে নগরবাসীর ভোগান্তির কোনো কারণ হবে না আশ্বাস দিয়ে মেয়র বলেন, আমরা পুরো শহর থেকে রিকশা তুলে দিচ্ছি, তা কিন্তু নয়। আমরা শুধুমাত্র বলছি, শহরের প্রধান সড়কগুলোতে রিকশা যেন না চলে। এতে কেউ কেউ বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছেন যে, শহর থেকেই রিকশা তুলে দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি আমরা অবৈধ রিকশা চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছি এবং বৈধ রিকশাগুলো (রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত) ডিএনসিসির প্রধান সড়কের সংযুক্ত ৭৪ নেটওয়ার্কিং সড়কে চলবে।

রিকশা চলাচলে নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি ফুটপাত থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ডিএনসিসি নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলেও জানান আতিক। তিনি বলেন, জনদুর্ভোগ এড়াতে রিকশা চলাচল বন্ধের পাশাপাশি রোববার থেকে ডিএনসিসির সব এলাকায় যেখানেই ফুটপাত দখল থাকবে সেখানেই আমাদের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা অভিযান পরিচালনা করবেন।

৭ জুলাই থেকে রাজধানীর দুটি রুটের তিনটি সড়কে বন্ধ হচ্ছে রিকশা চলাচল। এগুলো হচ্ছে গাবতলী থেকে আসাদগেট নিউমার্কেট হয়ে আজিমপুর ও সায়েন্স ল্যাবরেটরি থেকে শাহবাগ পর্যন্ত এবং কুড়িল থেকে বাড্ডা রামপুরা হয়ে সায়েদাবাদ পর্যন্ত।

 

"