নেতা নির্বাচনে তৃণমূলের অংশগ্রহণ থাকবে

জি এম কাদের

প্রকাশ : ২৫ জুন ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

এখন থেকে দলে নেতৃত্ব নির্বাচন ও কর্মসূচি প্রণয়নে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জিএম কাদের। গতকাল সোমবার রাজধানী ঢাকার মতিঝিলের একটি মিলনায়তনে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগীয় সাংগঠনিক সভায় সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। জিএম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টি ২৯টি বছর ক্ষমতার বাইরে। অনেক ষড়যন্ত্র ও অনেক প্রতিকূল অবস্থা মোকাবিলা করে জাতীয় পার্টি একটি শক্তিশালী অবস্থান সৃষ্টি করতে পেরেছে। জাতীয় পার্টি এখন একটি সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে আছে। সম্ভাবনাময় একটি রাজনৈতিক দলে হিসেবে জাতীয় পার্টিকে প্রতিষ্ঠিত করতেই সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে আগামী দিনে জাতীয় পার্টি চলবে। আর এজন্যই জাতীয় পার্টি আটটি বিভাগের নেতাকর্মীদের মতামত ও পরামর্শ শুনতে বিভাগীয় সাংগঠনিক সভার আয়োজন করা হয়েছে। নেতাকর্মীরা যেন মনে করে জাতীয় পার্টিতে তাদের মালিকানা আছে। তিনি আরো বলেন, শুধু কর্মসূচি বাস্তবায়ন করলেই হবে না। নেতৃত্ব নির্বাচন ও কর্মসূচি প্রণয়নে তৃণমূল নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা হবে। একটি সফল রাজনৈতিক দলের দৃষ্টান্ত হিসেবে জাতীয় পার্টিকে তৈরি করা হবে। জিএম কাদের তার বড় ভাই জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রোগমুক্তি এবং দীর্ঘায়ু কামনা করে সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন তিনি।

সভায় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি বলেছেন, ‘আমরা জোটবদ্ধভাবে নির্বাচন করেছি। নির্বাচন শেষ, নির্বাচনী জোটও শেষ।’ তিনি বলেন, ‘আজ বগুড়ায় নির্বাচন হচ্ছে, জাতীয় পার্টি লাঙ্গল নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। এখন আর কোনো জোট নেই। আগামীতে আমরা এককভাবে নির্বাচন করব। আর সেজন্যই দলকে আরো শক্তিশালী করতে আট বিভাগের নেতাদের মতামত গ্রহণ করতেই এই আয়োজন।’ অনুষ্ঠানে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের জেলা, মহানগর, উপজেলা ও পৌর কমিটির নেতারা বক্তৃতা করেন। উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আবুল কাশেম, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, অ্যাডভোকেট শেখ সিরাজুল ইসলাম, মুজিবুল হক চুন্নু, সৈয়দ আবদুল মান্নান প্রমুখ।

"