বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে দাঁতের চিকিৎসা

খালেদা জিয়ার ১১ মামলার শুনানি ১৭ জুলাই

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে হত্যা, রাষ্ট্রদ্রোহসহ ১১ মামলার শুনানির দিন পিছিয়ে আগামী ১৭ জুলাই ধার্য করেছেন আদালত। আসামিপক্ষের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কেরানীগঞ্জ কারাগারে স্থাপিত নবনির্মিত ২ নম্বর ভবনে অস্থায়ী ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ গতকাল বুধবার এদিন ধার্য করেন। এদিন এসব মামলার শুনানির জন্য ধার্য ছিল। এদিকে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে দাঁতের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

গত ১ এপ্রিল থেকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের কেবিন ব্লকের ৬২১ নম্বর কেবিনে ভর্তি খালেদাকে দুপুরে একটি মাইক্রোবাসে করে হাসপাতালের ‘এ’ ব্লকে নেওয়া হয়। পরে হুইলচেয়ারে বসিয়ে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় চতুর্থতলায় ডেন্টাল ইউনিটে। ঘণ্টা দেড়েক পর কড়া নিরাপত্তার মধ্যে আবার তাকে কেবিনে ফিরিয়ে নেওয়া হয় বলে হাসপাতালের অতিরিক্ত পরিচালক নাজমুল করিম জানান।

তিনি বলেন, ডেন্টাল ও ম্যাক্সিলোফেসিয়াল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহমুদা আকতারের তত্ত্বাবধানে খালেদা জিয়াকে দাঁতের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

পরে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে মাহবুবুল হক এক ব্রিফিংয়ে বলেন, তার (খালেদা জিয়া) দাঁতে কিছুটা সমস্যা ছিল। ডেন্টাল ডিপার্টমেন্টে তাকে নিয়ে সেটা কারেক্ট করে দেওয়া হয়েছে। নাথিং। আর কিছু না।

১১ মামলার মধ্যে যাত্রাবাড়ী থানার একটি হত্যা মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণের বিষয়ে শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। অপর ১০ মামলা ছিল অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানির জন্য।

গত বছরে বিভিন্ন সময় মামলাগুলোয় চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। সবগুলো মামলায় খালেদা জিয়াকে পলাতক দেখিয়ে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন করা হয়। পরে খালেদা জিয়া মামলাগুলোয় আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন।

 

"