স্বামীর দেওয়া আগুনে গৃহবধূর মৃত্যু

প্রকাশ : ১৪ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

স্বামীর দেওয়া আগুনে দগ্ধ হয়ে মৃত্যুর সঙ্গে ৫ দিন লড়াই করে অবশেষে হেরে গেলেন লালমনিরহাটের পাটগ্রাম শহরের গৃহবধূ রোজিনা বেগম (২০)। গতকাল শনিবার দুপুরে গৃহবধূর মৃত্যুর খবর সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন পাটগ্রাম থানার ওসি মনছুর আলী। রাজধানী ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় মারা যান ওই গৃহবধূ। এর আগে গত সোমবার সন্ধ্যায় ঘাতক স্বামী আব্দুল্লাহ কেরোসিন ঢেলে স্ত্রী রোজিনার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেন। ওইদিনই স্থানীয়রা ঘাতক স্বামী আব্দুল্লাহকে (২৫) আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। আব্দুল্লাহ পাটগ্রাম পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নিউ পূর্বপাড়া এলাকার মোমিন মিয়ার ছেলে।

পাটগ্রাম থানা পুলিশ জানায়, বিয়ের পর থেকে প্রায় সময় স্ত্রীকে নির্যাতন করতেন আব্দুল্লাহ।

বাড়ির পায়খানা মেরামত করতে বলায় রাগান্বিত আব্দুল্লাহ সোমবার সন্ধ্যায় স্ত্রী রোজিনার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। গৃহবধূ রোজিনার আর্তচিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে ঢামেকের বার্ন ইউনিটে রেফার করেন চিকিৎসকরা। টানা ৫ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মারা যান রোজিনা বেগম।

পাটগ্রাম থানার ওসি মনছুর আলী জানান, এ ঘটনায় ওইদিনই আব্দুল্লাহর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

 

"