বড়পুকুরিয়ায় শ্রমিক নিয়োগ নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ

প্রকাশ : ০৯ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

বড়পুকুরিয়া তাপবিদুৎ কেন্দ্রে শ্রমিক নিয়োগকে কেন্দ্র করে গতকাল সোমবার দুই পক্ষে দফায় দফায় হামলা এবং মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এতে দুই পক্ষের অন্তত পাঁচজন আহত হন। জানা যায়, তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে নির্মিত তৃতীয় ইউনিটে পরিচ্ছনকর্মীর ২০টি পদে শ্রমিক নিয়োগের দিনক্ষণ নির্ধারিত ছিল এ দিন। আগে কর্মরত লোকোবল থেকে শ্রমিক নিয়োগের দাবিতে শ্রমিক অধিকার আদায় আন্দোলন কমিটি এ দিন সকাল থেকে বিক্ষোভ করে। এই কমিটির সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মো. আবু সাঈদের নেতৃত্বে একটি মিছিল তৃতীয় ইউনিটের প্রধান ফটকে অবস্থান নেয়। শ্রমিকদের মতে কর্তৃপক্ষ তাদের সঙ্গে টালবাহানা শুরু করলে তারা দাবি আদায়ে রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছেন। কিন্তু সুমন গ্রুপের লোকজনেরা দুপুর দেড়টায় শ্রমিকদের ওপর হামলা চালায়। এতে দুই পক্ষের মধ্যে কয়েক জন শ্রমিক আহত হন।

শ্রমিক অধিকার আদায় আন্দোলন পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ জানান, তৃতীয় ইউনিট নির্মাণে অনেক শ্রমিক দক্ষ ও যোগ্য হয়ে উঠেছেন। তাদের দাবি দক্ষদের মধ্য থেকে নিয়োগ দেওয়া হোক। তারা আরো বলেন, তাদের ওপর অযাচিত হামলার প্রতিবাদ ও শ্রমিকদের দাবি মেনে না নেওয়ায় আজ মঙ্গলবার রাজপথ, রেলপথ অবরোধ করা হবে। শ্রমিকদের ওপর হামলা ও সংঘর্ষের খবর পেয়ে পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেহানুল হক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। গতকাল এ সংবাদ লিখা পর্যন্ত বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী আবদুল হাকিম সরকার এ ব্যাপারে জানান, এখানে ১৬ থেকে ১৭ জন লোক নেওয়ার সুযোগ আছে। সুমন গ্রুপের লোকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের পাওয়া যায়নি। এর বাইরে লোক নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই। যারা আন্দোলন করছেন, তারা বেহুদা বিবাদ সৃষ্টি করছেন। মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোকলেছুর রহমান বলেন, পরিস্থিতি পুশিলের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

"