সিরাজদিখানে ছাত্রী উত্ত্যক্তের বাধা দিতে গিয়ে ব্যবসায়ী আহত

প্রকাশ : ২৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি

স্কুলছাত্রীদের উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় সিরাজদিখানে এক ব্যবসায়ীকে মারধর করেছে মাদকাসক্ত বখাটেরা। গতকাল সোমবার উপজেলার খাসমহল বালুচর উচ্চবিদ্যালয়ের অষ্টম ও সপ্তম শ্রেণির চার ছাত্রীকে স্কুলে যাওয়ার পথে বসু মার্কেট নামক স্থানে বখাটেরা ছাত্রীদের শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও উত্ত্যক্ত করে। ছাত্রীদের লাঞ্ছিতকারী এলাকার বখাটে মো. কাদির ও জুয়েলকে বাধা দেন ব্যবসায়ী মো. আলী হোসেন। এ সময় বখাটেরা এই ব্যবসায়ীকে মারধর করে আহত করে। তিনি সিরাজদিখান থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ সময় দুই ছাত্রীর বাবাও থানায় উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে বসু মার্কেটসংলগ্ন খাশমহল বালুচর গ্রামের বখাটে মো. কাদিও এবং জুয়েল খাশমহল বালুচর উচ্চবিদ্যালয়ের চার ছাত্রীকে স্কুলে যাতায়েতের সময় উত্ত্যক্ত করে আসছিল। স্থানীয়ভাবে কয়েকবার এ বিষয়ে এলাকার গণ্যমান্যদের জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি। তিন মাস আগে জুয়েল মাদকসহ পুলিশের হাতে আটক হলে তিন মাস হাজত খেটে জামিনে এসে আবারও আপন দুই ভাই মিলে এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম শুরু করেছে।

গতকাল সোমবার স্কুলে যাওয়ার পথে দুই ভাই ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করার সময় স্থানীয় ব্যবসায়ী খাসমহল বালুরচর দক্ষিণপাড়া গ্রামের মো. আলী হোসেন বাধা দিলে বখাটেরা বেধড়ক মারধর করে আহত করে। স্থানীয় মো. আক্তার হোসেন অভিযোগ করে বলেন, আমরা নেশাখোর বখাটে দুই ভাইকে অনেকবার সাবধান করেছি, তারা কাউকেই মানে না।

ওরা মাদকের সঙ্গে জড়িত এবং স্কুলের শুরু ও ছুটির সময় ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করে প্রতিদিন। আমরা এদের উচিত বিচার চাই।

ভুক্তভোগী আলী হোসেন জানান, ছাত্রীদের উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করলে বখাটেরা আমাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে মারধর করে এবং প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যায়।

সিরাজদিখান থানার ওসি মো. ফরিদ উদ্দিন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। পুলিশ পাঠিয়েছি তারা পালিয়ে গেছে। তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

"