ব্রাজিলের বৃহত্তম শহরে বন্যায় ১১ জনের মৃত্যু

প্রকাশ : ১৩ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ল্যাটিন আমেরিকার প্রধান বাণিজ্যকেন্দ্র ব্রাজিলের সাও পাওলো শহরে তীব্র বন্যায় অন্তত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বন্যায় শহরটির রাস্তাগুলো নদীর রূপ নিয়েছে এবং উল্টে পড়া অনেক গাড়ি ভবনের শীর্ষে ও গাছের ভেতরে ঢুকে গেছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

শহরটিতে গত রোববার বিকেল থেকে সোমবার বিকেল পর্যন্ত প্রায় ১১০ মিলিমিটার (চার ইঞ্চির বেশি) বৃষ্টিপাত হয়েছে এবং গত সোমবার সন্ধ্যায় আরো বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

পুরো মার্চ মাসে যে পরিমাণ বৃষ্টিপাত প্রত্যাশিত ছিল একদিনের তার ৭০ শতাংশ হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

সাও পাওলো রাজ্যের নিরাপত্তা মন্ত্রণালয়ের তথ্যানুযায়ী, পাঁচজন ডুবে মারা গেছেন, বাকিরা অন্তত একজন শিশুসহ ভূমিধসে জীবন্ত চাপা পড়ে মারা গেছেন।

বন্যার কারণে সাও পাওলো শহরে যানবাহন চলাচল স্থবির হয়ে পড়েছে। কমিউটার ট্রেনগুলোর সার্ভিস আংশিক বন্ধ রয়েছে। বাস ও গাড়িগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়া রাস্তাগুলোতে আটকা পড়ে আছে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে অন্তত আরো দুই দিন বৃষ্টি হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

স্থানীয় মেটালওয়ার্কার্স ইউনিয়ন জানিয়েছে, সাও বের্নান্দো দ্যু ক্যাম্পুতে মার্সেডিজ বেঞ্জ ট্রাক ও বাস কারখানা পানিতে ডুবে গেছে এবং কারখানাটির কিছু অংশ বন্ধ রাখা হয়েছে।

জার্মানির গাড়ি তৈরির এই প্রতিষ্ঠানটি ব্রাজিলে ট্রাক ও বাসের সবচেয়ে বড় নির্মাতা। গত বছর তারা ২১ হাজার ১৫৩টি গাড়ি বিক্রি করেছিল।

তাদের কারখানা বন্ধের বিষয়ে মন্তব্যের জন্য অনুরোধ করা হলেও মার্সেডিজ বেঞ্জ সাড়া দেয়নি বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

 

"