ময়মনসিংহে হত্যার দায়ে তিনজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশ : ১১ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

সাত বছর আগে চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনিয়ে নেওয়ার মামলায় তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন ময়মনসিংহের একটি আদালত। গতকাল রোববার ময়মনসিংহের ১ম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ইকবাল হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদ-প্রাপ্তরা হলেন ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার উজানপাড়া গ্রামের আবদুল হালিমের ছেলে জিয়াউল হাসান (২৫), ভালুকার ছোটকাশর গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে ইসমাইল হোসেন (২৪) এবং গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার গলদা গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে সুরুজ মিয়া (২৫)। এদের মধ্যে প্রথম দুজন কারাগারে এবং অপরজন পলাতক রয়েছেন বলে জানান রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এ বি এম নুরুজ্জামান খোকন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১১ সালের ১২ মার্চ বিকেলে যাত্রীবেশে ভালুকা উপজেলার কাচিনা বাজারের আবুল হোসেনের ছেলে শফিকুল ইসলামের সিএনজি চালিত অটোরিকশা ভাড়া নেয় তিন ব্যক্তি। সন্ধ্যার দিকে তাকে দড়ি দিয়ে বেঁধে কুপিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার পর শফিকুলকে ভালুকার জামিদিয়া মাস্টারবাড়ির বিলাইজুড়া খালে ফেলে তার অটোরিকশাটি নিয়ে চলে যায়। পর দিন স্থানীয়রা শফিকুল ইসলামের লাশ খালে ভাসতে দেখে পরিবারের লোকজন ও পুলিশকে খবর দেয়। এ ঘটনায় ১৩ মার্চ শফিকুলের বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে ভালুকা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

অ্যাডভোকেট নুরুজ্জামান বলেন, পরে পুলিশ অন্য একটি মামলায় ইসমাইল হোসেনকে আটক করলে তিনি আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন, যা থেকে শফিকুল হত্যার রহস্য বেরিয়ে আসে। এরপর পুলিশ জিয়াউল হাসানকে আটক করলে তিনিও আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। এরপর পুলিশ ওই তিনজনকে আসামি করে অভিযোগপত্র দেন, বলেন নুরুজ্জামান।

 

"