২১ দফা দাবিতে জাবি উপাচার্যকে শিক্ষকদের স্মারকলিপি

মেয়াদোত্তীর্ণ ডিন, সিন্ডিকেট ও একাডেমিক কাউন্সিলের নির্বাচন দাবি

প্রকাশ : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

জাবি প্রতিনিধি
ama ami

মেয়াদোত্তীর্ণ ডিন, সিন্ডিকেট ও একাডেমিক কাউন্সিল নির্বাচনের ব্যবস্থা করাসহ ২১ দফা দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে ‘সম্মিলিত শিক্ষক সমাজ’। গতকাল সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে উপাচার্যের কার্যালয়ে উপাচার্যের কাছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও বামপন্থি শিক্ষকদের নিয়ে গঠিত এই জোটের শিক্ষকরা এ স্বারকলিপি প্রদান করেন।

স্মারকলিপিতে উল্লেখিত দাবির মধ্যে রয়েছে ১৯৭৩-এর অ্যাক্ট, অর্ডিনেন্স ও সংবিধি সমুন্নত রাখা ডিন, সিন্ডিকেট ও একাডেমিক কাউন্সিল নির্বাচনের ব্যবস্থা করা এবং নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগ বন্ধ রাখা, বাড়ি ভাড়া ভাতা ৫০ শতাংশ প্রদান সংক্রান্ত জটিলতার সমাধান, একাডেমিক কাউন্সিলের সভা আহ্বান, সেশন বেনিফিটের প্রচলিত রীতি অব্যাহত রাখা, শিক্ষকদের বিরুদ্ধে করা তদন্ত কমিটি বাতিল, সব ছাত্রের সহাবস্থান নিশ্চিতপূর্বক জাকসুর নির্বাচনের ব্যবস্থা করা, ডে-কেয়ার কেন্দ্র স্থাপন করা, অর্থ অপচয়কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ, উইকেন্ড প্রোগ্রামের অর্জিত টাকার স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা, পরিবহন সমস্যা নিরসন, প্রশাসনের বাইরের কেউ যেন ব্যক্তিগত কাজে বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়ি ব্যবহার না করতে পারে সেটি নিশ্চিত করা, শিক্ষকতা ও গবেষণার দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা ও বিদেশে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে শিক্ষাবৃত্তির ব্যবস্থা করা, শিক্ষা ছুটিতে থাকা শিক্ষকদের সরকারি কর্মকর্তার অনুরূপ বেতন-ভাতা প্রদান করা, শিক্ষা ছুটির সঙ্গেই পোস্ট ডক্টোরাল গবেষণা ছুটি প্রদান করা, বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোনো পদে শিক্ষকতার জন্য ছুটি প্রদান করা, পদোন্নতি শর্ত পূরণের তারিখ থেকে পদোন্নতির কার্যকর করা, ভূ-প্রকৃতি অক্ষুণœ রেখে ও জীববৈচিত্র্য সহায়ক অবকাঠামোগত কর্মপন্থা উন্নয়ন করা এবং ২০২১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুবর্ণ জয়ন্তী পালনে দল মত নির্বিশেষে সবাইকে নিয়ে কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা।

স্মারকলিপি প্রদানের সময় অন্যদের মধ্যে সম্মিলিত শিক্ষক সমাজের আহ্বায়ক ও শিক্ষক সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক অজিত কুমার মজুমদার, অধ্যাপক মো. শামছুল আলম, মোহাম্মদ কামরুল আহসান, অধ্যাপক মো. শরিফ উদ্দিন, অধ্যাপক মো. আলমগীর কবির, মো. জামাল উদ্দীন, অধ্যাপক নূরুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক ফরিদ আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

"