রক্ত ঢেলে প্রতিবাদ ও আমরণ অনশন

রাবিতে পাল্টাপাল্টি দাবির কর্মসূচি, আশ্বাসে প্রত্যাহার

প্রকাশ : ০৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

রাবি প্রতিনিধি

গত ১১ নভেম্বর থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইলেকট্রনিক অ্যান্ড ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগ এবং ফলিত পদার্থবিজ্ঞান অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (এপিইই) বিভাগ দুটি একীভূতকরণের দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছে এপিইই বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এর পরিপ্রেক্ষিতে ২০ নভেম্বর ইইই বিভাগের শিক্ষার্থীরা দুই বিভাগকে একীভূত না করার দাবিতে পাল্টা আন্দোলনে নামে। তারা ওই বিভাগ একীভূত না করার দাবিতে সড়কের ওপর রক্ত ঢেলে বিক্ষোভ করেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বিজ্ঞান ভবনের সামনে দুপুর দেড়টায় তারা এমন কর্মসূচি পালন করেন। পরে বিকেল সাড়ে ৩টায় তারা কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা দেন।

এদিকে, শিক্ষকদের আশ্বাস পেয়ে বিভাগ একীভূতের দাবিতে গত সোমবার থেকে শুরু হওয়া আমরণ অনশন কর্মসূচি স্থগিত করেছে ফলিত পদার্থবিজ্ঞান অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (এপিইই) বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে, আজ বুধবার অনুষ্ঠেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কমিটির সভায় বিভাগ একীভূতের বিষয়টি উত্থাপিত হবে। তবে আশানুরূপ সিদ্ধান্ত না পেলে কঠোর কর্মসূচিতে যাবেন বলে জানান বিভাগ দুটির শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল সকাল ৮টা থেকে ইইই বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে প্রথম বিজ্ঞান ভবনের সামনে অবস্থান নেন। পরে দুপুর দেড়টায় শিক্ষার্থীরা সড়কের ওপর রক্ত ঢেলে বিভাগ একীভূত না করার দাবি জানান। এ সময় রক্ত দিতে গিয়ে নাজমুল হাসান, আবু বক্কর সিদ্দিক, অরিন্দম সান্যাল দীপ্ত অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর বিকেল সাড়ে ৩টায় সংবাদ সম্মেলন করেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। সেখানে তারা এপিইইর শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে অযৌক্তিক দাবি করেন।

এ বিষয়ে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক আবু জাফর মু. তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ‘আগামীকাল (আজ) একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় বিষয়টি উত্থাপিত হবে।’

দুপুর দেড়টায় প্রক্টর লুৎফর রহমান, বিভাগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম নাহিদ, অধ্যাপক মোজাফফর হোসেন একাডেমিক কমিটির সভায় বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখবেন বলে জানান।

 

"