‘পুলিশ টাকা চাইলে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিন’

প্রকাশ : ১০ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি

জিডি, তদন্ত, চার্জশীট, পাসপোর্ট, পুলিশ ক্লিয়ারেন্সসহ সব পুলিশি কাজে অথবা থানায় খরচের নামে কোনো টাকা দিবেন না। সরকার পুলিশি কাজে সব ধরনের ব্যয় প্রদান করে থাকে। সর্বোপরি পুলিশ টিএ/ডিএসহ বেতন-ভাতা পেয়ে থাকে। সব মানুষ ভালো নয়, তেমনি সব পুলিশ খারাপ নয়। আমাদের মাঝে দু’চারজন খারাপ থাকতে পারে। কথাগুলো বলেন চাঁদপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) মো. জিহাদুল কবির পিপিএম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. জিহাদুল কবির পিপিএম বলেন, পুলিশ অনৈতিকভাবে টাকা চাইলে ওসি, সার্কেল অথবা আমাকে ফোন দিন। আমাদের মোবাইল নম্বর মনে না থাকলে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিন। যদি কোনো ব্যক্তি পুলিশকে টাকা দিলেন, তাহলে আপনিও অপরাধ করলেন। কারণ অনৈতিক কাজ করার নৈতিক অধিকার আমাদের কারো নেই।

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি কর্তৃক আয়োজিত মাদক, বাল্যবিবাহ, জঙ্গিবাদ ও নারী নির্যাতনবিরোধী কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার। গতকাল শুক্রবার বিকেলে হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজারস্থ বিশ্বরোডে কুমিল্লা-চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, আমরা জনবান্ধব পুলিশ হতে চাই। চাঁদপুরের সব থানা হবে সেবার স্থান। পুলিশ জনগণের বন্ধু এবং জনগণই পুলিশের বন্ধু হবে। পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ এ শব্দের প্রতিফলন ঘটাতে হবে। চাঁদপুর হবে মাদক, বাল্যবিবাহ, জঙ্গিবাদ ও নারী নির্যাতনমুক্ত একটি জেলা। আমরা ধীরে ধীরে সে দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। জনসম্পৃক্ত ছাড়া সামাজিক সমস্যা নির্মূল করা সম্ভব নয়।

হাজীগঞ্জ থানার ইনচার্জ (ওসি) মো. আলমগির হোসেন রনির সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ অধ্যাপক আবদুর রশিদ মজুমদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ সার্কেল) মো. আফজাল হোসেন, হাজীগঞ্জ পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র রায়হানুর রহমান জনি, জেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সাধারণ সম্পাদক সুফী খারুল আলম খোকন ও হাজীগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুন্সী মোহাম্মদ মনির।

 

"