‘বন্দর সঠিক কাজ না করলে আমদানি-রফতানি ব্যাহত হবে’

প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রাম বন্দর সঠিক কাজ না করলে আমদানি-রফতানি ব্যাহত হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান। গতকাল সোমবার সকালে আগ্রাবাদের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে ‘উন্নয়ন রোডম্যাড-চট্টগ্রাম বিভাগ’ শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ মন্তব্য করেন। চট্টগ্রাম চেম্বারের সহযোগিতায় এ সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় অর্থ ও পরিকল্পনা উপ-কমিটি। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর যদি ঠিকভাবে কাজ না করে, তবে আমদানি-রফতানি ব্যাহত হবে। এ ছাড়া রাজধানীর সঙ্গে সারা দেশের ভালো যোগাযোগ না থাকলে সরকারে জড়তা এসে যায়।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বারের সহসভাপতি এ এম মাহবুব চৌধুরী বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর ২০০৮ সালে ১০ লাখ ৭৯ হাজার টিইইউস হ্যান্ডলিং করত। এখন ৩০ লাখ টিইইউস হ্যান্ডলিং হচ্ছে। এটি দেশের উন্নয়ন চিত্র। বে টার্মিনাল হবে দেশের লাইফ লাইন। বে টার্মিনালের জন্য পৃথক সেল ও অফিস দরকার। বে টার্মিনালে আইসিডির বিকল্প সুযোগ রাখতে হবে।

 

সংসদ সদস্য শামসুল হক চৌধুরী বলেন, কর্ণফুলীতে ক্যাপিটাল ড্রেজিং শুরু হয়েছে। এখন নদী উঁচু হয়ে গেছে, শহর নিচু হয়ে গেছে। এ সমস্যার সমাধান হচ্ছে। দেশকে শুধু কৃষিনির্ভর রাখতে চাই না, শিল্পও গড়ে উঠুক। কর্ণফুলীর দুই পারে শহর গড়ে উঠুক। চট্টগ্রাম বন্দরে গাড়ি ঢোকার পথ ও বের হওয়ার পথ বাড়াতে হবে।

চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, বে টার্মিনাল আলাদা বন্দর হবে। এখানে ৫০ হাজার টনের জাহাজ আসতে পারবে। যে সুযোগ দেশের আর কোথাও নেই। এটি প্রকৃতি প্রদত্ত। এটি হলে ৫০ বছর বন্দর নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। ইকোনমিক জোনগুলো দ্রুত চালু করতে হবে। প্রকৃত বিনিয়োগকারীকে জায়গা দিতে হবে। অতীতে অনেক ইকোনমিক জোনে জায়গা নিয়ে ইন্ডাস্ট্রি করেনি। নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস, বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে।

অনুষ্ঠানে ‘রোডম্যাপ ফর ডেভেলপমেন্ট : প্রমোটিং সাসটেইনেবল গ্রোথ অব বাংলাদেশ’ শীর্ষক মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ও বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স করপোরেশনের চেয়ারম্যান ড. মো. সেলিম উদ্দিন। চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে ও আওয়ামী লীগের অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদক, সংসদ সদস্য টিপু মুন্সীর সঞ্চালনায় সেমিনারে বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য শামসুল হক চৌধুরী, বিজিএমইএর সহসভাপতি মোহাম্মদ নাছির, ব্যবসায়ী নেতা এ এম মাহাবুব চৌধুরী, এম এ সালাম, মাহফুজুল হক শাহ প্রমুখ।

 

"