অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহার করায় সাভারে আল-মুসলিম গ্রুপকে জরিমানা

প্রকাশ : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আশুলিয়া প্রতিনিধি

অবৈধভাবে সিলিন্ডার দিয়ে গ্যাস ব্যবহার করায় সাভারে আলোচিত তৈরী পোশাক কারখানা আল-মুলসলিম গ্রুপকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ রাসেল হাসান এ অভিযান পরিচালনা করেন।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে পৌর এলাকার উলাইল কর্ণপাড়া মহল্লার সাভার সিএনজি রি-ফুয়েলিং স্টেশনে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় সেখানে একটি কাভার্ডভ্যান ভর্তি সিলিন্ডার দিয়ে ঝুঁকিপূর্র্ণ পরিবেশে অবৈধভাবে গ্যাস সরবরাহ করা হচ্ছিল। এ সময় গাড়িটির চালক মো. হানিফকে আটক করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে ঝুঁকিপূর্ণ কাভার্ডভ্যানটি আল-মুসলিম গ্রুপের বলে জানা যায়। এ ঘটনায় তৈরি পোশাক কারখানা আল-মুসলিম গ্রুপের ভিতরে অভিযান চালিয়ে একই রকম আরো কয়েকটি কাভার্ডভ্যান পাওয়া যায়।

এ সময় অবৈধভাবে ঝুঁকিপূর্র্ণ পরিবেশে গ্যাস সরবরাহ করায় বাংলাদেশ গ্যাস আইন ২০১০ এর ১১ ধারায় আল-মুসলিম গ্রুপকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ভবিষ্যতে এ ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা না করার জন্য প্রতিষ্ঠানটিকে সতর্ক করার পাশাপাশি সিএনজি স্টেশনটির সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এদিকে, ভূমিদস্যুতার অভিযোগে আলোচিত আল-মুসমিলম গ্রুপে অভিযান পরিচালনার সময় তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সাংবাদিকদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন।

পরবর্তীতে পাশর্^বর্তী আল মাদানি রেস্টুরেন্টে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় অপরিষ্কার পরিবেশে পচা, বাসি ও ভেজাল খাবার পরিবেশন ও সংরক্ষণ করায় হোটেল মালিক শামিনুর রহমান শামীমকে ৩০ হাজার টাকা জরিমান করা হয়। অনাদায়ে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কাড়াদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ রাসেল হাসান বলেন, নিয়ম বহির্ভূতভাবে গ্যাস সরবরাহ ও ব্যবহার করায় আল-মুসলিম গ্রুপকে প্রাথমিকভাবে জরিমানা এবং সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া পাশর্^বর্তী আল-মাদানি রেস্টুরেন্টকে পচা, বাসি ও ভেজাল খাবার পরিবেশন করায় অর্থদন্ড প্রদান করা হয়। ভবিষ্যতে এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত রাখলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

"