কুমিল্লায় ভাসুরের হাতে গৃহবধূ খুন

প্রকাশ : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লা মহানগরীর মনোহরপুর এলাকায় তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে বিতর্কের জের ধরে ভাসুর ও জায়ের হাতে নির্মমভাবে খুন হয়েছেন ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ আয়েশা আক্তার রিমা (২৫)। গত শনিবার রাতে এ হত্যার ঘটনা ঘটে। পরে বাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় স্বামী নাসিরকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কুমিল্লা মহানগরীর মনোহরপুর সদর হাসপাতাল সড়কের পাশে সওদাগর বাড়ির মৃত রফিকুল ইসলামের দুইপুত্র মাসুম ও নাসির স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে একই বাড়িতে পৃথকভাবে বসবাস করতেন। গত ১ সেপ্টেম্বর রাত ৮ টায় মাসুম ছোটভাই নাসিরের কক্ষে ফ্রিজ রাখা নিয়ে রিমার সঙ্গে বাক-বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে মাসুম ও তা স্ত্রী শাহানা রিমাকে মারধরসহ শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরবর্তীতে শাহানা রিমার বাড়িতে মোবাইল করে তার অসুস্থতার সংবাদ দেয়। খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১০ টায় রিমার মা, ভাইসহ পরিবারের লোকজন মনোহরপুর রিমার স্বামীর বাড়িতে আসে। এ সময় ভাসুর মাসুম, তার স্ত্রী শাহানাসহ বাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়। এদিকে, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে রাতেই লাশ উদ্ধারসহ স্বামী নাসিরকে আটকে থানায় নিয়ে যায়। গতকাল রোববার কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে বিকেলে নিহতের বাবার বাড়ি মহানগরীর ২০ নং ওয়ার্ড মনিপুর গ্রামে জানাজার নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়। নিহতের চাচাতো ভাই স্বপন জানান, নিহত রিমার গলায় দাগ রয়েছে। তাকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে। কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সালাম মিয়া সাংবাদিকদের জানান, ঘটনাটি ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পর জানা যাবে। উল্লেখ্য, নিহত ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা রিমার চার বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

"