আশুলিয়ায় পানিতে ডুবে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশ : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আশুলিয়া প্রতিনিধি

আশুলিয়ায় সহপাঠীদের সঙ্গে গোসলে নেমে পানিতে ডুবে দুই শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে শিক্ষার্থী সোহাগ খন্দকারের লাশ স্থানীয় জেলেরা জাল ফেলে উদ্ধার করে। দুপুর ২টার দিকে ডিইপিজেডের দমকল বাহিনীর ডুবুরিরা মাসুদের লাশ উদ্ধার করেন।

জানা যায়, রোববার হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় ৮ শিক্ষার্থী ডগরতলী এলাকায় বংশী নদীতে গোসল করতে যায়। একপর্যায়ে নদীর স্রোতে ভেসে যায় সোহাগ ও মাসুদ। তাদের সহপাঠীরা সাঁতরিয়ে ডাঙ্গায় ওঠতে পারলেও তারা দুজন ওঠতে পারেনি। স্থানীয় জেলেরা প্রথমে নদীতে জাল ফেলে তাদের খুঁজতে শুরু করেন। এরপর ডিইপিজেডের দমকল বাহিনীর ডুবুরি সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেন। দমকলবাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই জেলেরা সোহাগের লাশ উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। পরে বেলা ২টার দিকে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের সদস্যরা মাসুদের লাশ উদ্ধার করেন।

নিহত সোহাগ খন্দকার আশুলিয়ার কাইছাবাড়ির এলাকায় সিরাজুল খন্দকারের ছেলে এবং স্থানীয় জে এল মডেল স্কুলের ৭ম শ্রেণির শিক্ষার্থী । অপর নিহত শিক্ষার্থী মাসুদ হোসেন কাইছাবাড়ি এলাকার ইকবাল হোসেনের ছেলে ও কাইছাবাড়ি আইডিয়াল মডেল স্কুলের ২য় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

এদিকে, গত শনিবার সাভার পৌর এলাকার দক্ষিণ রাজাশন মহল্লার আবুল কালামের ছেলে চয়ন (১৬) স্থানীয় মোল্লাবাড়ি বিলে বন্ধুদের সঙ্গে নৌকা নিয়ে ঘুরতে যায়। রাতে বাসায় ফেরার সময় বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে ছিটকে পানিতে পড়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে।

"