বললেন শাহরিয়ার কবির

সংখ্যালঘুদের সুরক্ষায় আইন করুন

প্রকাশ : ১৮ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
ama ami

ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আগামী নির্বাচনের আগেই সংখ্যালঘুদের সুরক্ষায় আইন পাশ করুন। তিনি বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী মৌলবাদী অপশক্তি ভয়াবহ চক্রান্ত করছে। তারা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ ভাঙার চেষ্টা করছে। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে বিভক্ত করার চেষ্টা করছে। এ ব্যাপারে আমাদের সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। গতকল শুক্রবার দুপুরে ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট মিন্টু ভৌমিকের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শাহরিয়ার কবির আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনেক কাজ শুরু করেছেন, এখনো শেষ করতে পারেননি। এখনো দল হিসেবে জামায়াতের বিচার হয়নি; মৌলবাদী সংগঠনগুলো নিষিদ্ধ হয়নি।

এসব দাবি পূরণে আমাদের আন্দোলনে থাকতে হবে। পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে জয়ী করতে কাজ করতে হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্থানীয় এমপি র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেন, নাসিরনগরের হিন্দুদের বাড়ি-ঘর ও মন্দিরে হামলার ঘটনায় মামলার একটি চার্জশিট দেওয়া হয়েছে। সেই চার্জশিটে ৯৯ ভাগ আসামি একজন নেতার অনুসারী। কিন্তু ঘটনা ভিন্নখাতে নিতে আমাকে ও আমার দলের উপজেলা সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকারকে জড়িত করার অপচেষ্টা চলছে। তিনি নাসিরনগরে হামলার ঘটনায় বাকি মামলার চার্জশিট দ্রুত দেওয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, তদন্তে তার ও আল মামুন সরকারের নাম আসলেও কোনো আপত্তি নেই। তবু দ্রুত চার্জশিট দাখিল করুন।

এ অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশ গুপ্ত। অন্যদের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক মনীন্দ্র কুমার নাথ, অ্যাডভোকেট উত্তম কুমার পাল, নারায়ন সাহা মনি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সভাপতি দিলীপ নাগ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অমরেন্দ্র লাল রায় ও আদেশ চন্দ্র দেব।

 

"