রংপুরে বাসচাপা

শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে বিক্ষোভ, চালক ও সহযোগী গ্রেফতার

প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

রংপুর ব্যুরো

রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় চালক ও সহযোগীর উপযুক্ত শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থীরা। তিন দফা দাবি বাস্তবায়ন না হলে কঠোর আন্দোলনে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে তারা। এদিকে গ্রেফতরা হয়েছে গাড়িটির চালক ও সহযোগী। গতকাল সোমবার শিক্ষার্থীরা কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভেতর বিক্ষোভ মিছিল করে। কলেজের বাইরে আসার চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের দফায় দফায় বাধা দেয়। পরে শিক্ষার্থীরা বাসচালক ও সহযোগীর ফাঁসির দাবিতে স্কুলের সামনে রাস্তার দুই পাশে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করে।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা নিরাপদ সড়ক চাই। প্রতিশ্রুতি নয়, বিচার চাই। সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মঞ্জু আরা পারভীনসহ অন্য শিক্ষক-শিক্ষিকারা। কর্মসূচি চলাকালীন নিহত সহপাঠী জিয়নের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করে তারা।

তাদের দাবিগুলো হলোÑ কলেজের সামনে স্পিড ব্রেকার নির্মাণ, শিক্ষার্থীদের জন্য আলাদা বাস ও জিয়ন হত্যাকারী বাসচালকের ফাঁসি। পরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু রাফা মো. আরিফ সমাবেশে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা প্রতিষ্ঠানে ফেরে।

এদিকে এ ঘটনায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এলাকা থেকে গত রোববার ঘাতক মিনিবাস ভাই-বোন পরিবহনের চালক গাইবান্ধা সাদ্যুল্লাহপুরের আবদুল সালামের ছেলে ইরফান মিয়া ও সহযোগী পলাশবাড়ীর বাবর আলীর ছেলে বাদশা মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় নগরীর রংপুর-কুড়িগ্রাম মহাসড়কের দর্শনা এলাকায় মিনিবাসের চাপায় রংপুর কালেক্টরেট স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্র তানভীর আহাম্মেদ জিয়ন নিহত হয়।

"