ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন

ট্রেনের টিকিট প্রত্যাশীদের ভোগান্তি

প্রকাশ : ১২ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক ও চট্টগ্রাম ব্যুরো

ইন্টারনেট সংযোগে সমস্যার কারণে ঈদের ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি বিঘিœত হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছেন রাত থেকে কাউন্টারের সামনে অপেক্ষায় থাকা হাজার হাজার টিকিট প্রত্যাশী। অগ্রিম টিকিট বিক্রির চতুর্থ দিন গতকাল শনিবার ঢাকার কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে দেড় ঘণ্টার বেশি সময় টিকিট বিক্রি বন্ধ থাকে। একই কারণে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনে টিকিট বিক্রি বন্ধ থাকে প্রায় দেড় ঘণ্টা।

দুই স্টেশনেই সকাল ৮টায় নির্ধারিত সময়ে কাউন্টার খুলে টিকিট বিক্রি শুরু করেন রেল কর্মকর্তারা। কিন্তু কমলাপুরে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সমস্যা শুরু হয়। ইন্টারনেট বিঘিœত হওয়ায় সার্ভারে ঢুকতে না পেরে তারা টিকিট বিক্রি করতে পারছিলেন না।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কমলাপুরে টিকিট বিক্রি পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। পরে লাইন ঠিক হওয়ার পর বেলা ১২টায় আবার টিকিট বিক্রি শুরু হয় বলে কমলাপুরের স্টেশনের ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্তী জানান। একই কারণে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনেও সকাল ১০টা ১০ মিনিট থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি বন্ধ ছিল বলে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার সরদার শাহাদাত আলী জানান।

চট্টগ্রামের যাত্রী মো. আবদুল আজিজ জানান, শুক্রবার সন্ধ্যার পর এসে লাইনে দাঁড়িয়ে শনিবার বেলা পৌনে ৯টার দিকে কাক্সিক্ষত টিকিট পেয়েছেন তিনি। এখন বাসের চেয়ে ট্রেনে যাতায়াত করা সহজ। তাছাড়া ট্রেনের সেবার মানও আগের চেয়ে উন্নত হয়েছে। সড়কপথে গেলে জ্যামে পড়ার সম্ভাবনা থাকে। এ জন্য ট্রেনে যাই।

হক গ্রুপের বিক্রয় বিভাগের কর্মকর্তা শাহীন আলম জানান, ১৮ নম্বর সিরিয়ালে থাকলেও তিনি কাক্সিক্ষত টিকিট পাননি। সারারাত অপেক্ষা করেও যদি প্রত্যাশিত টিকিট না পাই কেমন লাগে বলেন? অথচ আমার আগে মাত্র ১৭ জনকে টিকিট দিয়েছে। এর মধ্যেই এসি টিকিট শেষ! এটা মানা যায় না।

লালমনি এক্সপ্রেসের টিকিট কিনতে আসা ওয়ালিউল্লাহ অভিযোগ করেন, টিকিট নিয়ে ‘দুর্নীতি হচ্ছে’। এই ট্রেনে ৪০০ এসি সিট। আমার আগে ২০ জন টিকিট নিয়েছে। সবাই চারটা করে নিলেও তো ৮০টার বেশি যায় না। ৬৫ ভাগ কোটা হিসেব করলে কাউন্টারে ২৬০টা টিকিট থাকার কথা। টিকিট নিয়ে নিশ্চয়ই কোনো দুর্নীতি হচ্ছে। নইলে টিকিট যাবে কই?

কমলাপুরে নারীদের জন্য দুটি কাউন্টার থাকলেও বেলা সাড়ে ৯টা পর্যন্ত অগ্রিম টিকিট দেওয়া হচ্ছিল একটি কাউন্টার থেকে। এ কারণে সেখানে ভিড় ছিল অন্য কাউন্টারের চেয়ে বেশি।

"