বরিশালে স্ত্রীর চোখ উৎপাটন চেষ্টার অভিযোগ

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

বরিশাল প্রতিনিধি

বরিশালের বাকেরগঞ্জে গৃহবধূর চোখ উৎপাটন চেষ্টা ও তাকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনা ঘটেছে। গত সোমবার রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার সন্তোষদী গ্রামের হাওলাদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই গৃহবধূ শাহীনুর বেগমকে (৪০) বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শাহীনুর বেগমের স্বামী মাওলানা ছত্তার বলেছেন, বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে, তারাই স্ত্রীর চোখ উৎপাটনের চেষ্টা করেছে। অপরদিকে, শাহীনুর বেগম বলেছেন, এটা মোটেও ডাকাতির ঘটনা নয়, তার স্বামীই এটা ঘটিয়েছেন। সে কথা বললে মেরে ফেলবে বলে আতঙ্কে রয়েছেন শাহীনুর।

মাওলানা ছত্তার বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার চরাদী ইউনিয়নের সন্তোদী বাজার জামে মসজিদের ইমাম। এ ছাড়া তিনি চরাদী ইউনিয়নের বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটিরও নেতা।

শাহীনুর বেগম জানান, সোমবার রাত আড়াইটার দিকে তার স্বামী ও অন্য একজন অপরিচিত পুরুষ ঘরে আসে। এ সময় মাওলানা ছত্তার আমার বুকের ওপর চেপে বসে। তার হাতে থাকা ছোরা দিয়ে আমার চোখে আঘাত করে। সঙ্গে সঙ্গে চোখে অন্ধকার দেখতে পাই। আমার পা বেঁধে ফেলে অপর ওই লোকটি। তারা আমাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। প্লাস দিয়ে আমার দাঁত ভেঙে ফেলার চেষ্টা করে। একটি চিকন বস্তু কানের ভেতরে ঢুকিয়ে দেয়। বলে ‘তুই কানে আর কোনো দিনও শুনতে পারবি না, কথা বলতে পারবি না।’। তিনি আরো বলেন, অনেক কাকুতিমিনতির পর এই ঘটনাকে ডাকাতি বলে জানানোর শর্তে আমাকে ছেড়ে দেয় আর ডাকাত পড়েছে বলে ডাক-চিৎকার করতে থাকে। পরে স্থানীয়রা আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করে।

শাহীনুর আরো জানান, ২০০৪ সালে পারিবারিকভাবে তাদের বিবাহ হয়। স্বামী তাকে প্রায়ই মারধর করত। বাসায় বাজার করত না। সব সময়ই ঝগড়া হতো। এই প্রতিবেদককে তিনি আরো বলেন, ‘আপনারা এগুলো লিখবেন না। তাহলে স্বামী আমাকে মেরে ফেলবে।’

 

"