৩৬তম নন-ক্যাডার থেকে প্রধান শিক্ষক হলেন আরো ২৩ জন

প্রকাশ : ১২ জুন ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

৩৬তম বিসিএসের নন-ক্যাডার তালিকা থেকে আরো ২৩ জনকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগের সুপারিশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। পিএসসির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক জানিয়েছেন, বিশেষ বিবেচনায় আরো ২৩ জনকে প্রাথমিকের প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছে। চূড়ান্ত নিয়োগের আগে প্রার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষায় যোগ্য ঘোষণা ও যথাযথ এজেন্সির মাধ্যমে প্রাক-নিয়োগ জীবনবৃত্তান্ত যাচাই করবে সরকার। এই নিয়োগের সুপারিশের মধ্য দিয়ে ৩৬তম বিসিএসে উত্তীর্ণদের দ্বিতীয় শ্রেণির নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের সুপারিশ শেষ করা হলো।

৩৬তম বিসিএসের নন-ক্যাডার পদে নিয়োগের প্রক্রিয়া শেষ করার ঘোষণা দিয়েছিল পিএসসি। এরপর এটি নিয়ে কয়েক মাস ধরে আন্দোলন করে আসছিলেন নন-ক্যাডারের তালিকায় থাকা প্রার্থীরা।

৩৬তম বিসিএসের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় ৫ হাজার ৬৩১ জন উত্তীর্ণ হন। তাদের মধ্যে ২ হাজার ৩২৩ জনকে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করে পিএসসি। এর বাইরে এই বিসিএসে উত্তীর্ণ ৩ হাজার ৩০৮ জন পরীক্ষার্থীকে পদ শূন্য থাকাসাপেক্ষে নন-ক্যাডার হিসেবে রাখা হয়।

নন-ক্যাডারে থাকা তালিকা থেকে ২৮৪ জনকে প্রথম শ্রেণির পদের জন্য ও দ্বিতীয় শ্রেণির জন্য ১ হাজার ৮ জনকে নিয়োগের সুপারিশ করা হয়। এ ছাড়া প্রধান শিক্ষক পদে ৩০৩ জনকে নিয়োগের সুপারিশ করা হয়েছিল। আরো ২৩ জনকে প্রধান শিক্ষক পদে সুপারিশের মধ্য দিয়ে এই সংখ্যা হলো ৩২৬।

৩৬তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারে ২৯২ জন, পুলিশ ক্যাডারে ১১৭, কর ক্যাডারে ৪২, পররাষ্ট্র ২০, নিরীক্ষা ও হিসাব ১৫, কৃষি ৩২২, মৎস্য ৪৮, স্বাস্থ্য সহকারী সার্জন ১৮৭, পশুসম্পদ ৪৩ জনসহ ২ হাজার ৩২৩ জন প্রার্থীকে সুপারিশ করা হয়।

 

"