ফেনীতে গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

প্রকাশ : ১৩ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

ফেনী প্রতিনিধি

বিচারপ্রার্থী এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে ফেনীর ফুলগাজী সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধর্ষণ মামলায় গত বুধবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। নুরুল ইসলাম ফুলগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। এ ঘটনায় ওই নারীর পরিবারের পক্ষ থেকে ফুলগাজী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে তার অনুসারিরা গতকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ করেছে। ফুলগাজী উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কিসিঞ্জার চাকমা ও ফুলগাজী থানার সাব-ইনসপেক্টর মাজাহারুল ইসলাম এবং সহকারী সাব-ইনসপেক্টর সফিকুল ইসলামের উপস্থিতিতে সড়ক অবরোধকারীদের ধাওয়া করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। পুলিশ ও অভিযোগকারী নারীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার বিকেলে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বিজয়পুর গ্রামের ওই নারী তার পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া ভাগ্নেকে নিয়ে পারিবারিক সমস্যার বিষয়ে অভিযোগ করতে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে যান। তখন ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম কৌশলে শিশুটিকে টাকা দিয়ে দোকানে পাঠিয়ে দেন এবং ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। পরে শিশুটি ফিরে এসে চেয়ারম্যানের বন্ধ কক্ষের ভেতর থেকে কান্নার শব্দ শুনে চিৎকার করে। এ সময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। পরে পরিস্থিতি বুঝতে পেরে চেয়ারম্যান কৌশলে পালিয়ে যান।

পরিবার সূত্রে আরো জানা গেছে, ওই নারীকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে সন্ধ্যায় ফুলগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে শারীরিক পরীক্ষার জন্য রাতেই তাকে ফেনী জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। রাতেই তার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। ফেনী হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, একটি মেডিক্যাল বোর্ডের মাধ্যমে ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে।

 

"