রাশিয়ার ২৩ কূটনীতিককে বহিষ্কার করল যুক্তরাজ্য

প্রকাশ : ১৫ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক
ama ami

রাশিয়ার ২৩ জন কূটনীতিককে বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে। রাশিয়ার বেঁধে দেওয়া সময়সীমার মধ্যে সাবেক রুশ গুপ্তচর ও তার মেয়েকে নার্ভ এজেন্ট দিয়ে হত্যাচেষ্টা নিয়ে কোনো ব্যাখ্যা না দেওয়ায় যুক্তরাজ্য এ পদক্ষেপ নিল। গতকাল বুধবার পার্লামেন্টে মে বলেন, ‘ভিয়েনা কনভেশনের আওতায় যুক্তরাজ্য ২৩ রুশ কূটনীতিককে বরখাস্ত করবে। যারা আসলে ছদ্মবেশে থাকা গোয়েন্দা কর্মকর্তা। এক সপ্তাহের মধ্যে তাদের যুক্তরাজ্য ছাড়তে হবে।’ গত ৩০ বছরে এটিই লন্ডনের কূটনীতিক বহিষ্কারের সবচেয়ে বড় ঘটনা। এর মাধ্যমে আগামীতে যুক্তরাজ্যে রুশ গোয়েন্দাগিরি অনেকটাই কমে আসবে বলেও মনে করেন মে। তিনি বলেন, ‘রাশিয়ার মালিকানাধীন কোনো সম্পদ ব্যবহার করে যুক্তরাজ্যের নাগরিক বা এখানে বসবাসকারী কারো জীবন বা সম্পদ হুমকিতে ফেলার চেষ্টার প্রমাণ পেলে আমরা সেগুলোও জব্দ করব।’

গত ৪ মার্চ যুক্তরাজ্যের সালিসবেরির উইল্টশায়ারে একটি পার্কের বেঞ্চে থেকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় সাবেক রুশ গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপাল (৬৬) ও তার মেয়ে ইউলিয়াকে (৩৩) উদ্ধার করা হয়। দল ত্যাগের পর সাবেক রুশ গুপ্তচর স্ট্রিপাল যুক্তরাজ্যে বসাবাস করছেন। মেডিক্যাল পরীক্ষায় স্ক্রিপাল ও তার মেয়েকে নোভিচক গ্রুপের একটি নার্ভ এজেন্ট দেওয়া হয়েছিল বলে জানা যায়। ৭০ ও ৮০-এর দশকে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন নোভিচক সিরিজের নার্ভ এজেন্টগুলো তৈরি করে; যেগুলো সবচেয়ে মারাত্মক নার্ভ এজেন্ট বলে বিবেচিত হয়।

ওই ঘটনার পর মে তার দেশে নার্ভ এজেন্ট ব্যবহারের ধৃষ্টতা দেখানোর ব্যাখ্যা দিতে রাশিয়াকে গত মঙ্গলবার মধ্যরাত পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছিলেন।

 

"