লিচুর নানাপদ

প্রকাশ : ১৪ জুন ২০১৯, ০০:০০

রন্ধনশিল্পী তানজিন তিপিয়া

বাংলার প্রকৃতিতে এখন বর্ষা শুরু হলেও রয়েছে গ্রীষ্মের আমেজ। আর গ্রীষ্ম মানেই মধুময় নানা মৌসুমি ফলের সমারোহ। এগুলোর মধ্যে লিচু অন্যতম। অ্যাসকরবিক অ্যাসিড ভিটামিন সি, অ্যান্টি-অক্সিডেন্টে ভরপুর; যা দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, পলিফলিক ও জৈব যৌগের উপস্থিতির কারণে লিচু ক্যানসার প্রতিরোধী, ডায়েটারি ফাইবারে সমৃদ্ধ; যা ওজন কমায়, কম সোডিয়ামযুক্ত বলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে, হজম ক্রিয়া ও পরিপাকে সহায়ক, তবে ডায়াবেটিস রোগীরা দিনে ৩-৫টির বেশি নয়। গর্ভবতী মায়েরা এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। বহু উপকারী ছোট্ট

ফলটি নিয়েই আজকের আয়োজন।

লিচুর সালাদ

উপকরণ : ধোয়া খোসা ছড়ানো লিচু ১ বাটি/২৫টি, পুদিনাপাতা কুচি ১ মুঠো, চিনি ৪ চা চামচ, কাঁচামরিচ কুচি ১টি, লেবুর খোসা গ্রেট করা ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি : পুদিনা ও চিনি হামিদিস্তার ডাটি দিয়ে থেঁত করে, সব উপকরণ একত্রে ভালোভাবে মাখিয়ে নিলেই জিবে জল আনা মিষ্টি লিচুর সালাদ একদম তৈরি।

লিচুর শরবত

উপকরণ : ১০টি লিচু বিচি বার করা, চিনি ৪ টেবিল চামচ (ইচ্ছা), পানি ২ গ্লাস।

প্রণালি : একত্রে সব উপকরণ ব্লেন্ডারে দিয়ে পিষে ফেলুন, ছাকনিতে রস ছেঁকে ফেলুন। এবার আপনার লিচুর শরবত তৈরি।

লিচুর কাপ কেক

উপকরণ : কেক-ময়দা, চিনি, তেল প্রতিটি ১ কাপ করে, ডিম ৩টি, খাবার সোডা আধা চা চামচ। ভ্যানিলা এসেন্স ৪ ফোঁটা। প্রথমে ডিম, চিনি বিটার দিয়ে মিক্স করুন। বাকি সব উপকরণ একত্রে মিশিয়ে মিশ্রণটি কাপ কেকের কাগজের ডাইজে ঢেলে ৩৫০ ফরেনহাইট প্রিহিট ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ১৫-২২ মিনিট বেক করুন।

উইপ ক্রিম : খুব ঠান্ডা ২ কাপ তরল দুধে পুরো ১ প্যাকেটের হুইপ ক্রিম পাউডার ও বিটার দিয়ে মিক্স করুন যতক্ষণ না ফুলে ঘন হয়।

প্রণালি : ১২টি লিচু কুচি করে নিন। কাপ কেকগুলো প্রস্থ বরাবর কেটে উইপ ক্রিম লাগিয়ে ঘন করে লিচু কুচি দিয়ে আবার ক্রিম দিয়ে কেকের অপর অংশটি বসিয়ে ওপরে ক্রিম লাগিয়ে, রঙিন দানা ছড়িয়ে লিচুর টুকরো বসিয়ে দিলেই লিচুর স্বাদে কাপ কেক তৈরি।

বি. দ্র. : কাপ কেকের ঝামেলা এড়াতে মিশ্রণটি একত্রে বড় কেকের টিনে, প্লেন কেক বানিয়েও করা যাবে তবে সময় লাগবে ওভেনে ৪০-৫০ মি.।

লিচুর ফালুদা

উপকরণ : লিচু ১০টি, পানিতে ভেজানো চায়না গ্রাসের প্যাকেট ১টি এবং আরেকটির অর্ধেকটা, ১ লিটার তরল দুধ, ডিমের কুসুম ফেটানো ৩টি, গুঁড়া দুধ ১ কাপ, ভ্যানিলা এসেন্স ২ ফোঁটা, চিনি ১০ টেবিল চামচ।

প্রণালি : সব উপকরণ মিশিয়ে ৫ মিনিট জ্বাল দিন। ফেটানো ডিমে অল্প গরম দুধ মিশিয়ে ভালোভাবে ফেটিয়ে দুধে ঢেলে দিন। চায়না গ্রাস গোলে গেলেই আপনার পছন্দমতো আকারের কোনো টিন বা ডাইজে ঢেলে ২ ঘণ্টা ফ্রিজ হয়ে জমে গেলে লিচুর গরম জেলিটি সাদা ফালুদার ওপর ঢেলে আরো ১ ঘণ্টা ফ্রিজ করলেই লিচুর স্বাদে পিজ ফালুদা একদম তৈরি।

লিচুর জেলি ১ প্যাকেট চায়না গ্রাসের অর্ধেকটা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন ১০টি লিচু আধা কাপ পানির সঙ্গে ব্লেন্ড করে এক ফোঁটা নীল রং ও ৩ টেবিল চামচ চিনির সঙ্গে একত্রে জ্বাল দিন। ঘন ফেনা হয়ে এলেই জেলি তৈরি।

"