বাচ্চাদের আদর্শ খাবার কাস্টার্ড

প্রকাশ : ০৮ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

যেকোনো উপলক্ষে মিষ্টান্ন বাছাই তালিকায় অন্যতম স্থান করে নিয়েছে কাস্টার্ড। কম-বেশি সবার ভালো লাগার এই দুধেল ডেজার্টটি তৈরি হবে আজ। ভিন্ন স্বাদে ভিন্ন আঙ্গিকে সচরাচর উপকরণ দিয়েই; যা হতে পারে আপনার বাচ্চার জন্য আদর্শ খাবার। কারণ উপকরণে রয়েছে সুষম খাদ্য দুধ সঙ্গে কাটা ফলমূল। এর ক্যালসিয়াম অস্থি, অস্থি মজ্জা ও দাঁত গঠনের নিয়ামক। রন্ধনশিল্পী তানজিন তিপিয়া।

 

ফ্রুট কাস্টার্ড

উপকরণ : পানি বড় দুই কাপ, চিনি ৫ টেবিল চামচ, লবণ এক চিমটি, আটা দুই চা চামচ, ভ্যানিলা অ্যাসেন্স আধা চা চামচ, গুঁড়াদুধ বড় এক কাপ।

প্রস্তুত প্রণালি : সব উপকরণ একত্রে মিশিয়ে জ্বাল দিন। ১০-১৫ মিনিট ফুটান। ঘন হয়ে এলেই কাস্টার্ড তৈরি।

বি. দ্র. : যেকোনো কাস্টার্ডের মিশ্রণ দু-তিন দিন ফ্রিজে রাখা যাবে। ফল কেটে মিশিয়ে রাখবেন না। কারণ ফল হতে পানি বেরিয়ে মিশ্রণটি পাতলা হয়ে যায়। তাই অবশ্যই ফ্রুট তৎক্ষণাৎ কেটে দেবেন, যেমন : কলা, আনার, আঙুর ইত্যাদি।

 

এগ কাস্টার্ড

উপকরণ : দুই লিটার তরল দুধ, ডিমের কুসুম ফেটানো ৫টি, চিনি ১০ টেবিল চামচ, লবণ এক চিমটি।

ফোম তৈরি : একটি ডিমের সাদা অংশে তিন টেবিল চামচ আইসিং সুগার দিয়ে বিট করুন। সাদা ফোমের মতো ফুলে এলে চামচ কেটে ফুটন্ত গরম পানিতে ফোম ছেড়ে উল্টেপাল্টে নিন। পরিবেশনের সময় বাটির ওপর ফোম সাজিয়ে দিন।

প্রস্তুত প্রণালি : তরল দুধ ফুটিয়ে এক লিটার পরিমাণ হয়ে এলে ফেটানো ডিমে অল্প গরম দুধ মিশিয়ে ভালোভাবে ফেটিয়ে দুধে ঢেলে দিন। ৫ মিনিট মাঝারি আঁচে নাড়তে থাকুন। এবার তৈরি হয়ে গেল মোলায়েম এগ কাস্টার্ড।

 

লেমন কাস্টার্ড

উপকরণ : এক লিটার তরল দুধ, লেবুর খোসা ৪ টুকরা, ডিমের কুসুম ফেটানো ৩টি, গুঁড়াদুধ এক কাপ, চিনি ১০ টেবিল চামচ, লবণ এক চিমটি।

প্রস্তুত প্রণালি : দুধ বাদে সব উপকরণ মিশিয়ে ৫ মিনিট জ্বাল দিন। ফেটানো ডিমে অল্প গরম দুধ মিশিয়ে ভালোভাবে ফেটিয়ে দুধে ঢেলে দিন ৫ মিনিট মাঝারি আঁচে নাড়তে থাকুন। লেবুর স্বাদে কাস্টার্ড একদম তৈরি।

 

কাঠবাদাম কাস্টার্ড

উপকরণ : পানি বড় দুই কাপ, কাঠবাদাম ১০০ গ্রাম/২ মুঠো, চিনি ৫ টেবিল চামচ, লবণ এক চিমটি, আটা দুই চা চামচ, ভ্যানিলা অ্যাসেন্স আধা চা চামচ, গুঁড়াদুধ বড় এক কাপ।

প্রস্তুত প্রণালি : কাঠবাদাম গরম পানিতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে খোসা ছাড়িয়ে কুচি করে নিন। সব উপকরণ একত্রে মিশিয়ে জ্বাল দিন। ১০-১৫ মিনিট ফোটান। ঘন হয়ে এলেই স্বাস্থ্যকর কাঠবাদামের কাস্টার্ড তৈরি।

বি. দ্র. : কাঠবাদাম পুষ্টিতে সমৃদ্ধ, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন ‘ই’তে ভরপুর, রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ, ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমিয়ে হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে এবং ওজন কমাতেও ভূমিকা রাখে।

 

"