আমের অসাধারণ তিনটি রেসিপি

প্রকাশ | ২৯ জুন ২০১৮, ০০:০০

রান্নাবান্না ডেস্ক

বাজারে এখন আমের ব্যাপক সমাহার। মধুমাসের এই সুস্বাদু ফলটি ধনী-গরিব কে না পছন্দ করে। তবে কেউ কেউ বিভিন্নভাবে এ ফলের স্বাদ নিতে চায়। তাদের জন্য আজ দেওয়া হলো আমের অসাধারণ তিনটি রেসিপি।

আমের জেলি

পাকা আম এক কেজি নিয়ে খোসা ফেলে আমগুলো ডুবোপানিতে সিদ্ধ করবেন। পানি শুকিয়ে অর্ধেক হয়ে এলে আমগুলো তুলে রস বার করে মোটা ছাকনিতে ছেকে নিন যাতে আঁশগুলো রসে না আসে। এরপরে আধা কেজি চিনি দিয়ে আমের রস আর সিদ্ধকরা পানি চুলোয় বসান। ফুটে উঠে যখন সাদা ফেনা উঠবে, তখন এর মধ্যে দুই টেবিল চামচ লেবুর রস দিয়ে নাড়তে থাকবেন। এভাবে ১০-১২ মিনিট জ্বাল করে দেখতে হবে জেলি হলো কি না। এটা চেক করা সহজ একটা পদ্ধতি আছে। এক কাপ পানিতে কয়েক ফোটা জেলি ফেলতে হবে, জেলি হয়ে গেলে সেটা নিচে জমা হবে, না হলে পানিতে মিশে যাবে বোঝা যাবে না। রস ঘন হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন, একটু ঠা-া হলে শুকনো বয়ামে ঢেলে ফেলুন।

আমের জুস

পাকা আম ৫ থেকে ৭টি। চিনি ৫ কাপ। লেবু ৬টি। পানি পরিমাণমতো। এবার একটি পরিষ্কার পাত্রে ৫ কাপ চিনি এবং তার দ্বিগুণ পরিমাণ পানি নিয়ে একসঙ্গে মেশান। মিশ্রণকে তাপ দিতে হবে যতক্ষণ না পর্যন্ত এটা সিরাপের মতো আঠালো ও ঘন হয়। ঘন হয়ে গেলে তাপ দেওয়া বন্ধ করতে হবে এবং ঘন মিশ্রণটিকে ঠা-া করতে হবে। পাকা আমগুলোকে পরিষ্কার পানি দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। আমগুলোকে কুচিকুচি করে কেটে আঁটি থেকে ছাড়িয়ে নিতে হবে। আমের কুচি ব্লেন্ডারে নিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে পেস্টের মতো তৈরি করতে হবে। লেবুগুলোকে কেটে চাপ দিয়ে রস বের করে নিতে হবে। লেবুর রস ও চিনির ঘন মিশ্রণকে ব্লেন্ডারের আমের পেস্টের সঙ্গে মিশিয়ে ভালো ভাবে ব্লেন্ড করেতে হবে। এবার জুসকে ছেঁকে নিয়ে বোতলে ভরে ফ্রিজে রেখে দেবেন। এভাবে এক মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। সঙ্গে সাইট্রিক অ্যাসিড মিশিয়ে নিতে পারেন তাতে ফ্লেভার বৃদ্ধি পাবে। খাবার সময় ১ অংশ গাঢ় জুসের সঙ্গে ৫ অংশ পানি মিশিয়ে নেবেন, তাহলেই তৈরি হয়ে যাবে একটি সুস্বাদু আমের জুস।

আম-গুড়ের মিষ্ট আচার

আঁটি শক্ত হয়েছে এমন আম নিতে হবে এই আচারের জন্য। আম খোসা ফেলে টুকরো টুকরো করে কেটে নিতে হবে আটিসহ। এরপরে হাঁড়িতে গুড় জ্বাল দিয়ে সিরা বানিয়ে এতে আমের টুকরো, পাঁচ ফোরনেরগুঁড়ো, থেতো করা রসুন, পরিমাণমতো লবণ দিয়ে কসাতে হবে। আমগুলোকে ঘুটে গলাতে হবে। এরপরে বড় ট্রেতে ঢেলে রোদে দিন। শিকিয়ে আসলে গলা আমগুলোকে নিয়ে আঁটির টুকরোগুলোর সঙ্গে মুঠি করে করে লাগিয়ে দিন, তারপর আবার রোদে দিন।

 

 

"