হাসপাতালের আড়ালে সমবায় সমিতি কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০০:০০

জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুর পৌর শহরের বানিয়া বাজারে হযরত শাহ পরাণ (রঃ) হাসপাতালের মালিক রাজু আহাম্মেদ (৪৫) এর বিরুদ্ধে দিশা সমবায় বহুমূখী সমিতির গ্রাহকের কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ বিষয়ে সমিতির গ্রাহকরা হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ পালন করেন।

সমিতির সদস্য বেলটিয়া এলাকার লাভলু জানান, ২০১০ ইং সাল থেকে জামালপুর দিশা বহুমূখী সমবায় সমিতির নামে হাসপাতাল পরিচালনার পাশাপাশি আরও একটি প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছিলেন রাজু আহাম্মেদ। যার রেজিঃ নং- জ ১৬১/২০১০। এ সমিতির সদস্য সংখ্যা প্রায় ৬ শতাধিক। তাদের জমা টাকার পরিমাণ প্রায় ১ কোটি টাকা। এ টাকা আত্মসাতের উদ্দ্যেশ্যে হাসপাতালের মালিক রাজু আহাম্মেদ দীর্ঘদিন যাবত সমিতির গ্রাহকদের সাথে পায়তারা করে আসছে।

দিশা বহুমূখী সমবায় সমিতির সদস্য রুবিনা খাতুন জানান, গত ২৮/০৮/২০১৭ ইং তারিখে সমিতির মাধ্যমে গ্রাহকদেরকে দায় দেনা পরিশোধের নাম করে একটি চিঠি প্রদান করা হয়। উক্ত চিঠিতে ১২/০৯/২০১৭ ইং তারিখ দুপুরে অফিসে এসে টাকা নিয়ে যাওয়ার জন্য বলা হয়। সমিতির চিঠি পেয়ে সকল সদস্যরা গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হাসপাতালের সামনে ভিড় জমায়। কিন্তু সমিতির মালিক রাজু আহাম্মেদ সদস্যদেরকে আজ টাকা দিতে পারবে না বলে জানালে তারা বিক্ষোভে ফেটে পড়ে।

হাসপাতালের মালিক রাজু আহাম্মেদ বলেন, আমি সমিতির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক হিসেবে রয়েছে মোঃ হান্নান মিয়া। আমি প্রায় ৭ বছর যাবত এ সমিতিটি পরিচালনা করে আসছি। এর মধ্যে গ্রাহক সংখ্যা হয়েছে প্রায় ৬ শত। গ্রাহকরা প্রায় ৬০ লক্ষ টাকা সমিতির কাছে পাবে। টাকা দিয়ে দেওয়ার ইচ্ছে আমার রয়েছে। তাই সকলকে আজ অফিসে ডেকে নিয়ে এসেছিলাম। কিন্তু টাকা না পাওয়ার কারনে তাদেরকে টাকা বুঝিয়ে দিতে পারিনি।

"