পুকুরের প্রতিরক্ষা দেয়ালে ধস

ঘর হারানোর শঙ্কায় শতাধিক পরিবার

প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

ময়মনসিংহের ঈশ^রগঞ্জে পৌর সদরে পাটবাজার এলাকায় একটি পুকুরের প্রতিরক্ষা দেয়াল ধসে যাওয়ায় ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে প্রায় শতাধিক পরিবার। কয়েকদিনের ভারি বর্ষণে পাটবাজার এলাকায় মসজিদ সংলগ্ন পুকুরের দেওয়াল ধসে পড়ায় রাস্তাসহ ও বাসাবাড়ি ধসের মুখে পড়েছে। ধস ঠেকাতে সেখানে বালির বস্তা ফেলে অস্থায়ী প্রতিরক্ষার চেষ্টা করছে পৌর কর্তৃপক্ষ। এতে আপাতত কূল রক্ষা হলেও স্থায়ীভাবে এর সমাধ না হলে পুকুর পাড়ে বসবাসরত শতাধিক পরিবারে ঘর হারানোর শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

সরেজমিন এলাকাটিতে গিয়ে দেখা যায়, গাইড ওয়াল ভেঙে বাসাবাড়ি ভাঙনের মুখে পড়ায় পৌর সভার উদ্যোগের বালির বস্তা ফেলা হয়েছে। কিন্তু বৃহৎ পুকুরটির তিন দিকেই ভাঙন দেখা দেওয়ায় ও এবং পানির তোড়ে মাটি সরে যাওয়ায় শতাধিক পরিবার ঝুঁকির মুখে পড়েছে। এছাড়া কলোনিটিতে পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থা অপ্রতুল থাকায় বাসা বাড়ির পানি পুকুরটিতে গিয়ে পড়তো। এতে পানির চাপে পুকুরের গাইড ওয়ালটি ভেঙে গেছে। গাইড ওয়ালটি ভেঙে এলাকার শতাধিক বাসিন্দার সঙ্গে একটি মন্দিরও ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

ওই এলাকার বাসিন্দা শাহনাজ আক্তার বলেন, বাসার বারান্দা ধসে পড়েছে। কখন যে ধসে পড়ে তার ঠিক নেই। ওই অবস্থায় তারা আঙ্কের মধ্যে দিন যাপন করছেন। জহিরুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টির হওয়ায় পানির তোড়ে গাইড ওয়াল ভেঙে গেছে। এতে বাসায় ফাটল দেখা গিয়েছে। আশ পাশের বেশ কয়েকটি বাসায়ও কিছু অংশ ভেঙে পড়েছে। এখনও তারা শঙ্কা রয়েছ আরো বৃষ্টিপাত হলে বাসা ধসে পুকুরে চলে যেতে পারে।

ঈশ্বরগঞ্জ পৌর সভার মেয়র মুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুস ছাত্তার বলেন, পুকুরটির প্রতিরক্ষা দেয়ালটি কয়েক বছর পূর্বে সাবেক মেয়রের আমলে করা হয়েছে। মনে হচ্ছে এতে নিম্মমানের কাজ করায় পানির চাপে ধসে পড়ছে। ওই অবস্থায় ভাঙন কবলিত স্থানে বালির বস্তা ফেলে প্রতিরক্ষার চেষ্টা করা হচ্ছে।

"