হিলি স্থলবন্দরে বন্যা

আমদানি-রফতানি কার্যক্রম ব্যাহত

প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

টানা ৪ দিনের বৃষ্টিতে দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলার নি¤œাঞ্চলে বন্যার সৃষ্টি হয়েছে। এর ফলে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়ায় জন-জীবন স্থবির পয়ে পড়েছে। এদিকে হিলি স্থলবন্দরে গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলি পানির নিচে তলিয়ে গেছে। এতে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম।স্থানীয়দের অভিযোগ, পৌর এলাকায় সুষ্ঠু ড্রেনেজ ব্যবস্থা এবং রাস্তা উঁচু না হওয়ায় সামান্য বৃষ্টিতেই জলাবদ্ধতা হয়ে বন্যার সৃষ্টি হচ্ছে। যার প্রভাব পড়ছে হিলি স্থলবন্দরের ব্যবসা-বানিজ্যে। এছাড়া রাস্তাগুলি ভাঙ্গ-চোড়া হওয়ায় মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে যানবাহন সহ পথচারীদের। গতকাল রোববার সকালে ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলা পরিষদ থেকে বাসষ্ট্যান্ড হয়ে চারমাথা, হাসপাতাল, কলেজ, সোনারপট্টি, স্থানীয় আওয়ামী লীগের অফিস ও পানামা পোর্টের সামনের এসব রাস্তাগুলির উপর দিয়ে ১-২ ফুট পানি প্রবাহিত হচ্ছে। হাকিমপুর ডিগ্রী কলেজ, বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ এবং বাসষ্ট্যান্ড ৩-৪ ফুট পানিতে তলিয়ে গেছে। এসব এলাকার রাস্তা ঘেঁষে ড্রেন নির্মাণ করা হলেও কোনো কাজেই আসছে না। এদিকে পৌর সহ উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান খোলা থাকলেও পানি উঠায় ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি তেমন লক্ষ্য করা যায়নি। বন্দরের বেশকিছু গুদামে পানি ঢুকে নষ্ট হয়েছে আমদানিকৃত পণ্য। টানা বৃষ্টিতে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হয়েছে। রাস্তার কার্পেটিং উঠে গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় উল্টে যাচ্ছে পণ্যবাহী ট্রাক। এতে করে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে পথচারিসহ ভুক্তভোগিরা।

"