কেশবপুরে শুকনো মাটির অভাবে অন্যত্র দাফন

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি

যশোরের কেশবপুর উপজেলার মধ্যকুল গ্রামে কোমর পানিতে ডুবে গেছে কবরস্থান। বন্যার পানিতে ডুবে থাকায় বাপ দাদার কবর স্থানে দাফন করা যাচ্ছেনা গ্রামের মৃতদের। বাধ্য হয়ে অন্যত্র দাফন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হচ্ছে। উপজেলার মধ্যকুল গ্রামের মৃত সাহেব আলী খানের মেয়ে মলুদা খাতুন (৩৫) গত রোববার রাতে অসুস্থতার কারণে মারা যায়। পানির কারণে মলুদাকে তার বাপ-দাদার কবরস্থানে দাফন করা সম্ভব হয়নি। মলুদার বড় ভাই আব্দুর রাজ্জাক খান বলেন, বন্যার পানিতে বাপ দাদার কবর স্থান ডুবে থাকায় বোনের মৃত দেহ গতকাল সোমবার কেশবপুর সরকারী কবর স্থানে নিয়ে দাফন করতে হয়েছে। উল্লেখ্য, এর আগেও ওই গ্রামের দু মহিলার মৃত্যু হলে তাদেরকে পার্শ্ববর্তী মণিরামপুর উপজেলায় পিতার বাড়িতে দাফন করতে হয়েছে। এ ছাড়া মঙ্গলকোট গোলদার পাড়ার শেখ জবেদ আলীর মৃত্যু হলে তাকে তালা থানা এলাকার শুভাষিনীতে এক আত্মীয় বাড়িতে দাফন করতে হয়েছে।

"